অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভাইস প্রেসিডেন্ট কামালা হ্যারিস এপেক শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে থাইল্যান্ড রওনা হয়েছেন


ভাইস প্রেসিডেন্ট কামালা হ্যারিস এবং তার স্বামী ডাগ এমহফ এশিয়া-প্যাসিফিক অর্থনৈতিক সহযোগিতা শীর্ষ সম্মেলনে যোগদানের উদ্দেশ্যে মেরিল্যান্ডের অ্যান্ড্রুজ এয়ার ফোর্স বেজ থেকে বিমানে রওনা দিচ্ছেন। ১৬ নভেম্বর, ২০২২।

যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট কামালা হ্যারিস একটি আঞ্চলিক শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নিতে থাইল্যান্ড যাচ্ছেন। সেখানে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক স্বার্থ প্রচার করবেন এবং মিয়ানমারে চলমান সামরিক হামলা সংক্রান্ত উদ্বেগ নিয়ে আলোচনা করবেন।

হ্যারিস এশিয়া প্যাসিফিক ইকোনমিক কো-অপারেশন (এপেক) শীর্ষ সম্মেলনে বক্তব্য রাখবেন। এপেক-এর ২১টি সদস্য রাষ্ট্র ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতিক একীকরণ এবং সমৃদ্ধির জন্য চেষ্টা করে।.

সফরের আগে প্রশাসনের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা একটি ব্যাকগ্রাউন্ড ব্রিফিং-এ সাংবাদিকদের বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র আশা করে যে, আলোচনার ফলে নতুন অর্থনৈতিক উদ্যোগে্র জন্য অর্থায়ন হবে। এই কর্মকর্তা বলেন, “আমরা আশা করি যে তারা বার্মার পরিস্থিতির পাশাপাশি অন্যান্য আঞ্চলিক এবং বৈশ্বিক উন্নয়ন নিয়েও আলোচনা করবে।”

২০২১ সালে সেনাবাহিনী মিয়ানমারে একটি অভ্যুত্থানের মাধ্যমে নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে, ফলে দেশে সশস্ত্র প্রতিরোধের সূত্রপাত হয়।

গত সপ্তাহে অ্যাসোসিয়েশন অফ সাউথইস্ট এশিয়ান নেশন্স (আসিয়ান)- এর শীর্ষ সম্মেলন থেকে বাদ পড়ে মিয়ানমার। একটি যৌথ বিবৃতিতে ব্লকের সদস্যরা মিয়ানমারকে শান্তি পরিকল্পনার ক্ষেত্রে পরিমাপযোগ্য অগ্রগতি করতে সতর্কতা জারি করেছে; নতুবা সামাজিক ও রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলার কারণে দেশটি ব্লকের বৈঠকে অংশগ্রহণে বাধাপ্রাপ্ত হবে বলে সতর্ক করেছে।

মিয়ানমারের শাসক জান্তা আসিয়ানের বিবৃতি প্রত্যাখ্যান করেছে। এর আগে জান্তা অগ্রগতির অভাবের জন্য মহামারী এবং সশস্ত্র প্রতিরোধ আন্দোলনকে দায়ী করেছে।

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এপেক সম্মেলনে যোগ দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে। কিন্তু হ্যারিসের সাথে তার কোনো বৈঠকের কথা সময়সূচীতে নেই। এই সপ্তাহের শুরুতে শি জিনপিং প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সাথে প্রায় ৩ ঘণ্টার বৈঠক করেন।

ভয়েস অফ আমেরিকার পররাষ্ট্র মন্ত্রক ব্যুরো প্রধান নাইকি চিং এ প্রতিবেদন তৈরিতে সহায়তা করেছেন। র‍্যালফ জেনিংসও এ প্রতিবেদন তৈরিতে সহায়তা করেছেন।

XS
SM
MD
LG