অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা বলছেন, গাজা উপত্যকায় আগুনে অন্তত ২১ জন নিহত


উত্তর গাজা উপত্যকার জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের একটি অ্যাপার্টমেন্টে নিভানোর সময় ফিলিস্তিনিরা সেই বিল্ডিংয়ের সামনে জড়ো হয়েছে। ১৭ নভেম্বর, ২০২২।

উত্তর গাজা ভূখন্ডে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় একটি অগ্নিকাণ্ডে কমপক্ষে ২১ জন নিহত হয়েছেন। অঞ্চলটির হামাস শাসকরা বলেছেন, ইসরাইল-ফিলিস্তিনি সংঘাত থেকে উদ্ভূত সহিংসতার বাইরে সাম্প্রতিক বছরগুলিতে সবচেয়ে মারাত্মক ঘটনাগুলির মধ্যে এটি একটি।

ফিলিস্তিনি জঙ্গি সংগঠন হামাস জানিয়েছে, জনাকীর্ণ জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের তিনতলা ভবনের তৃতীয় তলায় আগুনের সূত্রপাত হয়।

হামাস দ্বারা পরিচালিত গাজার সিভিল ডিফেন্স বলেছে যে ভবনটিতে রাখা গ্যাসোলিন থেকে আগুনের উৎপত্তি হতে পারে।। কীভাবে পেট্রলটি জ্বলল তা তাৎক্ষণিকভাবে স্পষ্ট নয়। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তদন্ত চলছে।

জ্বলন্ত ভবনের জানালা দিয়ে আগুন ছড়িয়ে পড়তে দেখা গেছে । শত শত মানুষ বাইরে রাস্তায় জড়ো হয়ে, ফায়ারট্রাক এবং অ্যাম্বুলেন্সের জন্য অপেক্ষা করছিল।

হামাস দ্বারা শাসিত এবং রীতিমতা পঙ্গু করে দেওয়া ইসরাইল-মিশরীয় অবরোধের অধীনে গাজা তীব্র জ্বালানি সংকটের মুখোমুখি। শীতের প্রস্তুতির জন্য লোকেরা প্রায়শই বাড়িতে রান্নার গ্যাস, ডিজেল এবং পেট্রল সংরক্ষণ করে। এর আগে মোমবাতি এবং গ্যাস লিকেজের কারণে বাড়িতে আগুন লেগেছিল।

ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন এবং শুক্রবারকে শোক দিবস ঘোষণা করেছেন।

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা হুসেইন আল-শেখ ইসরাইলকে পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেমের ফিলিস্তিনি হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসা সেবার প্রয়োজন এমন আহতদের সরিয়ে নেওয়ার জন্য গাজার সাথে সীমান্ত ক্রসিং খুলে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

গাজা ভূখন্ডের সাথে এরেজ ক্রসিং নিয়ন্ত্রণকারী ইসরাইলি সংস্থা কোগ্যাট (COGAT), মন্তব্যের জন্য অনুরোধে তাত্ক্ষানিক কোন সাড়া দেয়নি।

XS
SM
MD
LG