অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পাকিস্তানের ক্ষমতাশালী সেনাপ্রধানের পারিবারিক সম্পদের হিসাব ফাঁসের বিরল ঘটনা; তদন্ত চলছে


পাকিস্তান সেনাবাহিনীর অফ চিফ কামার জাভেদ বাজওয়া পাকিস্তানের ইসলামাবাদে পাকিস্তান দিবসের সামরিক কুচকাওয়াজে যোগ দিচ্ছেন। ২৩ মার্চ, ২০১৭। ফাইল ছবি।

সোমবার পাকিস্তানের শক্তিধর সামরিক প্রধানের পরিবারের গোপনীয় আয়কর নথির “অবৈধ” এবং “অনাকাঙ্ক্ষিত ফাঁস” এর তাৎক্ষণিক তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির সরকার।

একটি অনলাইন অনুসন্ধানী নিউজ পোর্টাল ফ্যাক্টফোকাস এই মাসের শেষের দিকে জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার বর্ধিত ৬ বছরের মেয়াদে তার পরিবারের সদস্যদের প্রায় ৫ কোটি ৬০ লাখ ডলারের সম্পদ এবং সম্পত্তির একটি প্রতিবেদন প্রকাশের একদিন পরেই এই পদক্ষেপ নেয়া হয়।

ফাঁস হওয়ার আয়কর নথির উদ্ধৃতি দিয়ে প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, বাজওয়ার স্ত্রী সেনা প্রধান হিসেবে বাজওয়ার নিয়োগ হওয়ার আগ পর্যন্ত আয়কর দাখিলকারী ছিলেন না।কিন্তু বাজওয়ার নিয়োগের পরে তিনি বিদেশে তহবিল স্থানান্তর করেছেন, তেল ব্যবসা এবং রিয়েল এস্টেটে বিনিয়োগ করেছেন।

প্রতিবেদনটির লেখক আহমেদ নুরানি একজন পাকিস্তানি সাংবাদিক। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে থাকেন।

প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হওয়ার পরপরই পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষ অনলাইন পোর্টালটি ব্লক করে দেয় বলে অভিযোগ উঠেছে। ২০১৩ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত বাজওয়া এবং তার পরিবারের সম্পদের কথিত বিবরণীও নুরানি প্রকাশ করেছিলেন।

সামরিক বাহিনী বা তার নেতৃত্বের সমালোচনা করা পাকিস্তানে অত্যন্ত স্পর্শকাতর একটি বিষয়। সেনাবাহিনী ৪টি অভ্যুত্থান ঘটিয়েছে এবং ১৯৪৭ সালে ব্রিটেন থেকে স্বাধীনতা লাভের পর থেকে প্রায় ৩৩ বছর ধরে সেনাবাহিনী পারমাণবিক অস্ত্রধারী দক্ষিণ এশীয় এ দেশটি শাসন করেছে।

XS
SM
MD
LG