অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেন একদিন পশ্চিম সামরিক জোটে যোগ দেবেঃ নেটো প্রধান


নেটো মহাসচিব জেন্স স্টলটেনবার্গ ২০২২ সালের ২৯ নভেম্বর রোমানিয়ার বুখারেস্টে নেটো পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকের সময় একটি সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন।

মঙ্গলবার নেটো প্রধান জেন্স স্টলটেনবার্গ বলেছেন, রাশিয়ার আগ্রাসনের বিরুদ্ধে লড়াই করছে যে ইউক্রেন একদিন তারা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে সরাসরি অমান্য করে পশ্চিমা সামরিক জোটে যোগ দেবে।

তবে ইউক্রেন শীঘ্রই নেটোতে যোগদান করবে না। যদি করে, জোটের সনদের শর্ত অনুসারে, এমন সিদ্ধান্ত ৩০-সদস্য রাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনীকে সরাসরি রুশ সৈন্যের বিরুদ্ধে যুদ্ধের ময়দানে ঠেলে দেবে।

অনেক নেটো রাষ্ট্র বিশ্বাস করে যে, কিয়েভের সদস্যপদ নিয়ে নিজেদের মধ্যে সম্ভাব্য বিভক্তি সৃষ্টিকারী রাজনৈতিক লড়াইয়ের পরিবর্তে ইউক্রেনকে সামরিকভাবে সমর্থন করার দিকে মনোযোগ দেয়া উচিত। ইউক্রেন যুদ্ধের কিছু বিশ্লেষক মনে করেন, পুতিনের আক্রমণের সিদ্ধান্তের একটি কারণ ছিল ইউক্রেনের নেটো সদস্যপদ গ্রহণের সম্ভাবনা।

বুখারেস্টে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন ঘোষণা করেছেন, শীতকালে বিদ্যুৎ এবং জল ব্যবস্থায় বিঘ্ন ঘটানোর জন্য ইউক্রেনের অবকাঠামোকে লক্ষ্য করে কয়েক সপ্তাহ ধরে চলা রুশ বিমান হামলার পরিপ্রেক্ষিতে গুরুত্বপূর্ণ বিদ্যুৎ গ্রিড সরঞ্জাম ক্রয়ের জন্য যুক্তরাষ্ট্র কিয়েভকে সহায়তা হিসেবে আরও ৫ কোটি ৩০ লাখ ডলার পাঠাচ্ছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি সতর্ক করেছেন যে, রাশিয়ার সৈন্যরা নতুন হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে এবং তিনি কী পদক্ষেপ নেবেন তা নিয়ে আলোচনা করতে উর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাদের সাথে দেখা করেছেন।

সোমবার ইউক্রেন বলেছে, রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় আঘাতপ্রাপ্ত জ্বালানি অবকাঠামো দ্রুত মেরামত করার প্রয়োজনীয়তার কারণে তারা সারা দেশে নিয়মিতভাবে জরুরি ব্ল্যাকআউট আরোপ করতে বাধ্য হয়েছে।

এ প্রতিবেদনের কিছু তথ্য এপি, রয়টার্স এবং এএফপি থেকে নেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG