অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সামরিক বাহিনীর গোপন গর্ভপাত কর্মসূচির অভিযোগ তদন্তে নাইজেরিয়ার মানবাধিকার কমিশন


আদামাওয়া অঙ্গরাজ্যের মারারাবা শহরটি বোকো হারাম এর কাছ থেকে নাইজেরিয়ার সামরিক বাহিনী পুনর্দখল করার পর, সেখানে একটি পিকআপ ট্রাকের পেছনে চড়ে যাতায়াত করছেন নারীরা, ১০ মে ২০১৫। (ফাইল ফটো)

নাইজেরিয়ার মানবাধিকার কমিশন শুক্রবার জানিয়েছে যে, তারা এমন এক প্রতিবেদনের বিষয়ে তদন্ত করবেন যাতে বলা হয়েছে যে, নাইজেরিয়ার সামরিক বাহিনী গোপনে একটি গর্ভপাত কর্মসূচি চালিয়েছে, যার মাধ্যমে বোকো হারাম জঙ্গীদের থেকে উদ্ধার করা হাজার হাজার নারী ও মেয়েদের গর্ভপাত করানো হয়েছে। প্রতিবেদনটিতে বলা হয় যে, বেশিরভাগ গর্ভপাতই ছলচাতুরি করে বা নারীদেরকে জোরপূর্বক ট্যাবলেট খাইয়ে বা ইনজেকশনের মাধ্যমে করা হয়েছে। সামরিক বাহিনী প্রতিবেদনটিকে অসত্য আখ্যায়িত করে তা প্রত্যাখ্যান করেছে।

জাতিসংঘের কর্মকর্তারা, নাইজেরিয়ার সরকার এবং উন্নয়ন সহযোগীরা শুক্রবার দিনের শুরুর দিকে আবুজায় অবস্থিত জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদর দফতরে সাক্ষাৎ করেন।

বৈঠকটিতে নাইজেরিয়ার মানবাধিকার রেকর্ড বিষয়ে আলোকপাত করা হয়। ঘটনাটি এমন সময়ে হল যখন কিনা রয়টার্স সংবাদ সংস্থার এক অনুসন্ধানে নাইজেরিয়ার সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে আরও নিত্যনতুন অভিযোগ উঠে এসেছে।

রয়টার্সের প্রতিবেদটিতে ডজনকয়েক প্রত্যক্ষদর্শীকে উদ্ধৃত করা হয়েছে। প্রতিবেদনটি অনুযায়ী, ইসলামী জঙ্গীদের হাতে আটক বা ধর্ষণের শিকার নারী ও মেয়েদের জন্য দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলে নাইজেরিয়ার বাহিনী একটি গোপন গর্ভপাত কর্মসূচি চালিয়ে আসছে।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, সামরিক বাহিনী ২০১৩ সাল থেকে অন্তত ১০,০০০ গর্ভপাত ঘটিয়েছে।

প্রতিবেদনটিতে জানানো হয় যে, গর্ভপাতগুলো ট্যাবলেট খাওয়ানো বা ইনজেকশনের মাধ্যমে করা হয় এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তা ঐ নারীদের সম্মতি ব্যতীত এবং প্রায়শই তাদেরকে পূর্বে অবহিত না করেই করা হয়েছে।

তাতে বলা হয়, নারীদেরকে বলা হয় যে ট্যাবলেট বা ইনজেকশনগুলো তাদের স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধার করবে এবং ম্যালেরিয়ার মত রোগের সাথে লড়াই করবে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে যেসব নারী বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন, তাদেরকে মারধর করা হয়, ভয়ভীতি প্রদর্শন করা হয় বা নেশাজাতীয় দ্রব্যের মাধ্যমে সম্মত করানো হয়।

বৃহস্পতিবার নাইজেরিয়ার প্রতিরক্ষা প্রধান জেনারেল লাকি ইরাবোর প্রতিবেদনটি প্রত্যাখ্যান করেন এবং বলেন যে, সামরিক বাহিনী এ বিষয়ে কোন তদন্ত করবে না। তিনি বলেন যে, গণমাধ্যমের উচিৎ এমন আখ্যানগুলোকে সমর্থন করা যেগুলো সামরিক বাহিনীতে জনগণের আস্থা বৃদ্ধি করবে, কমাবে না।

XS
SM
MD
LG