অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেনীয় যুবকরা গানে গানে স্বাধীনতার বার্তা দিচ্ছে


কোপেনহেগেনের চার্চ অফ দ্য হোলি স্পিরিট-এ ক্রিসমাস কনসার্টের পর শেড্রিক গানের দলের সদস্যরা মঞ্চে গান পরিবশন করছেন। ৮ ডিসেম্বর ২০২২।
কোপেনহেগেনের চার্চ অফ দ্য হোলি স্পিরিট-এ ক্রিসমাস কনসার্টের পর শেড্রিক গানের দলের সদস্যরা মঞ্চে গান পরিবশন করছেন। ৮ ডিসেম্বর ২০২২।

নিভৃত কিয়েভ বোমা আশ্রয়কেন্দ্র থেকে ইউরোপের থিয়েটারের উজ্জ্বল মঞ্চ পর্যন্ত, ইউক্রেনীয় যুবকদের একটি গানের দল স্বাধীনতার গান ছড়িয়ে দিচ্ছে। যা কিনা যুদ্ধে আহত সদস্যদের জন্য যেন এক ধরণের নিরাময় হিসেবে কাজ করছে।

কিয়েভের প্রাচীনতম পেশাদার শিশুদের গায়ক দল শেড্রিক এনসেম্বল এই সপ্তাহে ডেনমার্কের রাজধানীতে একটি আন্তর্জাতিক সফরের অংশ হিসাবে অনুষ্ঠান পরিবেশনের জন্য গিয়েছিল। যার ফলে তারা নিউইয়র্কের বিখ্যাত কার্নেগি হলে গান করতে পেরেছিল৷

এই গানের দলটির ৫০ তম বার্ষিকী উদযাপন করার জন্য এটি একটি ব্যস্ত বছরের অংশ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু রাশিয়ার ২৪ ফেব্রুয়ারী ইউক্রেনে আগ্রাসনের ফলে সমস্ত কিছু পাল্টে যায়, সদস্যরা নিরাপত্তার সন্ধানে তাদের স্বদেশে এবং বিদেশে ছড়িয়ে পড়েন। কিছু সদস্য বলেছেন যে তারা যুদ্ধে বন্ধু এবং পরিবার হারিয়েছেন।

গানের দলটির শৈল্পিক পরিচালক এবং প্রধান পরিচালক মারিয়ানা সাবলিনা বলেন, "বাচ্চাদের জড়ো করা খুব কঠিন।" মারিয়ানার মা ১৯৭১ সালে গায়কদলটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। কিছু সদস্য "ইউক্রেনের সীমানার বাইরে, এবং প্রায় এক তৃতীয়াংশ ফোরাম সদস্য বর্তমানে কিয়েভে থাকেন।"

এই বছরের শুরুর দিকে, গায়কদল পুনরায় একত্রিত হতে পেরেছিল এবং কিয়েভের ন্যাশনাল প্যালেস অফ আর্টসে মহড়া শুরু করেছিল।

যুদ্ধের অস্থিরতা প্রায়ই মহড়ায় অসুবিধার সৃষ্টি করে। যখন কিয়েভে বোমাবর্ষণ হয় এবং বিদ্যুৎ বিভ্রাট হয়, তখন বিমান হামলার সাইরেন গায়কদলকে অন্ধকারাচ্ছন্ন বোমা আশ্রয়কেন্দ্রে জড়ো হতে বাধ্য করে।

১৫ বছর বয়সী গায়কদলের সদস্য আনাস্তাসিয়া রুসিনা বলেন, "যখন সাইরেন শুরু হয়, আমরা আশ্রয়কেন্দ্রে চলে যাই এবং আমাদের ফোন এবং ফ্ল্যাশলাইট দিয়ে গান করি।” রুসিনার পরিবার আক্রমণের পরে ইউক্রেনের পশ্চিমাঞ্চলে পালিয়ে গিয়েছিল৷

তিনি আরো বলেন, "আমি মনে করি যে আমরা এটিতে এক প্রকার অভ্যস্ত হয়ে যাচ্ছি কারণ এটা আমাদের কাজ। আমাদের একটি কনসার্ট আসছে, তাই আমরা কোনও মহড়া এড়িয়ে যেতে পারি না।”

কোপেনহেগেনের চার্চ অফ দ্য হোলি ঘোস্টের শ্রোতারা সম্প্রতি এই গানের দলের গায়কদের সম্মিলিত সঙ্গীত শুনেছেন, বেশিরভাগই কিশোরী মেয়ে। তারা কালো এবং সাদা পোশাক পরেছিল। তাদের হাতাতে লাল এবং কালো স্কোয়ার এবং তারা গলায় রঙিন পুঁতি পরেছিল।

XS
SM
MD
LG