অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ৬ জন নিহত


সড়ক দুর্ঘটনা

বাংলাদেশে বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) সড়ক দুর্ঘটনায় গাইবান্ধা, চট্টগ্রাম ও দিনাজপুর জেলায় স্বামী-স্ত্রীসহ ৬ জন নিহত ও ৩ জন আহত হয়েছেন।

গাইবান্ধায় বাসের ধাক্কায় স্বামী-স্ত্রীসহ নিহত ৪

গাইবান্ধায় বাসের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার আরোহী স্বামী-স্ত্রীসহ ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও একজন। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে গাইবান্ধা-পলাশবাড়ি সড়কের সাকোয়া মাঝিপাড়া নামক স্থানে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে তিনজনের নাম শামীম, তার স্ত্রী শিমু সরকার ও শাকিল মিয়া এবং অপরজনের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

পলাশবাড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদ রানা বলেন, ‘বৃহস্পতিবার সকালে গাইবান্ধা থেকে একটি সিএনজি যাত্রী নিয়ে পলাশবাড়ির দিকে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে ঘন কুয়াশায় কিছু বুঝে ওঠার আগেই ঢাকা থেকে গাইবান্ধাগামী শানে খোদা নামে পরিবহনের একটি বাস ওই সিএনজিকে চাপা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। এতে শামীম ও তাঁর স্ত্রী শিমু সরকার এবং শাকিল মিয়া নামে এক ব্যক্তি ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে সিএনজিচালক মারা যান। সিএনজিচালকের নাম জানা যায়নি। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। আর পড়ে থাকা তিন যাত্রীর লাশ পলাশবাড়ি থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে’।

তিনি আরও জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় সিএনজিচালকসহ দুজনকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেওয়ার পথে অঞ্জাতনামা সিএনজিচালক মারা যান। অপরজনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন ঘটনাস্থলে স্বামী-স্ত্রীসহ চারজনের মৃত্যুর তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমরা দুর্ঘটনাস্থলে উদ্ধার অভিযান চালিয়েছি। তিনজনের লাশ পুলিশকে আমরা হস্তান্তর করে আহত একজনকে হাসপাতালে পাঠিয়েছি’।

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে মোটরসাইকেলচালক নিহত

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় এক মোটরসাইকেলচালক নিহত এবং আরও দুজন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের শীতলপুরের সাইনবোর্ড এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মো. নয়ন (১৮) ওই এলাকার সালাউদ্দিনের ছেলে। আহতেরা হলেন দুর্ঘটনায় নিহত নয়নের বাবা সালাউদ্দিন এবং শামসুল আলম নামের আরেক ব্যক্তি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বার আউলিয়া হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আবদুর সবুর।

তিনি বলেন, ‘নিহত নয়ন ও তাঁর বাবাসহ তিনজন মোটরসাইকেলে করে ব্যাংকে যাওয়ার সময় চট্টগ্রামমুখী একটি কাভার্ডভ্যান মোটরসাইকেলটিকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেলে থাকা তিনজনই রাস্তায় ছিটকে পড়েন। এ সময় গুরুতর আহত হন নয়ন ও তাঁর বাবা। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা নয়নকে মৃত ঘোষণা করেন’।

তিনি আরও জানান, দুর্ঘটনার পর পর পুলিশ কাভার্ডভ্যানটি জব্দ করেছে।

দিনাজপুরে বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেলচালক নিহত

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেলচালক নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে উপজেলার দেবীগঞ্জ বাজার এলাকায় দিনাজপুর-রংপুর মহাসড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মোটরসাইকেলচালক টুটুল চন্দ্র দত্ত (২২) ওই উপজেলার বারাইপাড়ার তেজস চন্দ্র দত্তের ছেলে এবং পেশায় একজন ব্যবসায়ী।

হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল হক জানান, ‘মৃত টুটুল চন্দ্র দত্ত মোটরসাইকেল চালিয়ে নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরে যাওয়ার সময় দিনাজপুর-রংপুর মহাসড়কের চিরিরবন্দরের দেবীগঞ্জ বাজার এলাকায় পৌঁছলে ঢাকাগামী একটি যাত্রীবাহী বাস মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এতে দুর্ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেলচালক টুটুল দত্ত নিহত হন’।

XS
SM
MD
LG