অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

চট্টগ্রাম টেস্টে জাকিরের অভিষেক সেঞ্চুরি, সমস্যা কাটেনি বাংলাদেশ দলের


চট্টগ্রাম টেস্টে জাকির অভিষেক সেঞ্চুরি

বাংলাদেশের বাঁ-হাতি ব্যাটার জাকির হাসান চট্টগ্রামে ভারতের বিরুদ্ধে চলমান টেস্টে তার অভিষেক ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছেন। এর সঙ্গে অসাধারণ দক্ষতা প্রদর্শন করেন তিনি। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ক্যারিয়ারের অসাধারণ সূচনা তার। জাকিরের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি সত্ত্বেও,বাংলাদেশ দলের সংকট কাটেনি। টিম-টাইগারকে হয় পঞ্চম দিনের পুরোটা সময় মাত্র চার ইউকেটে ব্যাট করতে হবে। অথবা একটি প্রায়-অসম্ভব জয় ছিনিয়ে আনতে আরও ২৪১ রান করতে হবে।

চতুর্থ দিন শেষে, বাংলাদেশ ছয় উইকেটে ২৭২ রানে ব্যাট করছে। সাকিব আল হাসান ও মেহেদী হাসান মিরাজ অপরাজিত আছেন ৪০ ও ৯ রানে। নাজমুল হোসেন শান্ত এবং জাকির জুটি ১০০ রানের একটি চিত্তাকর্ষক ওপেনিং স্ট্যান্ড তৈরি করেন। তারা চট্টগ্রামে সকালের সেশন জুড়ে ব্যাটিং করে ভারতের বোলারদের ঘাম ঝরায়।

প্রথম ইনিংসে গোল্ডেন ডাকের শিকার হওয়া শান্ত এবার ৬৭ রান করেন। উমেশ যাদব শান্তকে সরিয়ে দিলে, ভারত প্রথম সাফল্য পায়। শান্তর আউটের পর ইয়াসির আলীকে দ্রুত হারায় বাংলাদেশ। পাঁচ রান করতে মাত্র ১২ বল খেলেন তিনি। লিটন দাস ও মুশফিকুর রহিম দুজনেই ভালো শুরু করেন। তবে, দুজনেই সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন। কুলদীপ যাদবের কাছে উইকেট হারানোর আগে, লিটন ৫৯ বলে ১৯ রান করেন। আর, অক্ষর প্যাটেলের বলে আউট হওয়ার আগে, মুশফিক ৫০ বলে ২০ রান করেন।

মুশফিকের আউট হওয়ার আগে জাকির ২২৪ বলে একটি অসাধারণ সেঞ্চুরি করেছিলেন। আমিনুল ইসলাম, মোহাম্মদ আশরাফুল এবং আবুল হাসানের পর, তিনি চতুর্থ বাংলাদেশি, যিনি অভিষেকে সেঞ্চুরি করেন। তিনি ২৬৯টি ডেলিভারির মুখোমুখি হন, যা জাভেদ ওমরের ৩০৬ রানের পর দ্বিতীয়, যা তাকে বাংলাদেশের হয়ে টেস্ট অভিষেকের দ্বিতীয়-প্রাণবন্ত ওপেনার করে তোলে।টেস্ট ক্রিকেটে জাকিরের অভিষেকের দিনে ৫০ রানে তিন উইকেট নিয়ে ভারতের সেরা বোলার ছিলেন অক্ষর। ভারতের হয়ে একটি করে উইকেট নেন উমেশ ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

এর আগে, টস জিতে ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ভারত ৪০৪ রান করেছিল। চেতেশ্বর পূজারা দুর্দান্ত ৯০ রানের স্কোর করেছিলেন। তাইজুল ইসলাম এবং মেহেদি উভয়েই এই ম্যাচে চারটি করে উইকেট নেন।

কুলদীপ পাঁচ উইকেট নিয়ে তাদের ব্যাটিং লাইনআপ-কে ধ্বংস করার সঙ্গে সঙ্গে, বাংলাদেশ ১৫০ রানের জবাব দেয়। ভারত তখন দুই উইকেটে ২৫৮ রান করে এবং তাদের দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে। আর, ৫১২ রানের বিশাল লিড তৈরি করে।

XS
SM
MD
LG