অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিশ্বকাপ বিজয়ী আর্জেন্টিনা পাবে ৪ কোটি ২০ লক্ষ ডলার অর্থ পুরস্কার


লুসেইল স্টেডিয়ামের উপর দিয়ে একটি ফ্লাইপাস্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই স্টেডিয়ামেই ১৮ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের মধ্যকার বিশ্বকাপ ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়।
লুসেইল স্টেডিয়ামের উপর দিয়ে একটি ফ্লাইপাস্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই স্টেডিয়ামেই ১৮ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের মধ্যকার বিশ্বকাপ ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়।

এবারের বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা তাদের ফুটবল ফেডারেশনের জন্য পুরস্কারের অর্থ বাবদ ৪ কোটি ২০ লক্ষ ডলার পাবে।

রবিবারের ফাইনাল ম্যাচে পরাজিত দল হিসেবে ফ্রান্স পাবে ৩ কোটি ডলার। এই বিশ্বকাপের জন্য ফিফা’র মোট অর্থ পুরস্কারের তহবিলটির আকার ৪৪ কোটি ডলার।

২০১৮ সালে যখন ফ্রান্স বিশ্বকাপ বিজয়ী হয়, তখন তাদের দেশের ফেডারেশনটি পেয়েছিল ৩ কোটি ৮০ লক্ষ ডলার। সেবার ফিফা’র পুরস্কার তহবিলের আকার ছিল ৪০ কোটি ডলার।

পুরস্কার হিসেবে দেওয়া সম্পূর্ণ অর্থই খেলোয়াড়রা পান না, যদিও ধারণা করা যায় যে সেটির বড় একটি অংশ তারা পাবেন। এবার ফ্রান্স বিজয়ী হলে কিলিয়ান এমবাপে’র ৫,৫৪,০০০ ইউরো (৫,৮৬,০০০ ডলার) পাওয়ার কথা ছিল। ফাইনালে জয়ী হওয়ার জন্য ফেডারেশন তাকে এই পুরস্কারটি দিত। ফ্রান্সের ক্রীড়া বিষয়ক দৈনিক পত্রিকা ল্য’ইক্যুইপ এসব তথ্য জানায়।

এই বছরের বিশ্বকাপে অংশগ্রহণের জন্য প্রতিটি জাতীয় ফুটবল ফেডারেশন অন্তত ৯০ লক্ষ ডলার পুরস্কার পেয়েছে। এছাড়াও প্রতিটি ফেডারেশনকেই টুর্নামেন্টটির প্রস্তুতির ব্যয় মেটানোর জন্য আরও ১৫ লক্ষ ডলার দেওয়া হয়।

তৃতীয় স্থান অধিকারী হিসেবে, ক্রোয়েশিয়া পুরস্কারের অর্থ বাবদ ২ কোটি ৭০ লক্ষ ডলার পেয়েছে। চতুর্থ স্থান অধিকারী মরক্কোকে ২ কোটি ৫০ লক্ষ ডলার দেওয়া হবে।

বিগত চার বছরে ফিফা’র মোট আয় হয়েছে ৭৫০ কোটি ডলার। এগুলোর বেশিরভাগই এসেছে সম্প্রচার ও স্পন্সরশীপের জন্য করা চুক্তিগুলো থেকে। এছাড়াও টিকিট বিক্রি ও আতিথেয়তার অধিকারগুলো বিক্রি করেও আয় করেছে ফিফা।

XS
SM
MD
LG