অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আইপিইএফ-এর সুবিধা-অসুবিধা মূল্যায়ন করছে বাংলাদেশ


বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিআইআইএসএস) এর একটি রিসার্চ কলোকুইয়ামে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।
বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিআইআইএসএস) এর একটি রিসার্চ কলোকুইয়ামে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

ইন্দো-প্যাসিফিক ইকোনমিক ফ্রেমওয়ার্ক (আইপিইএফ) এর ‘ভালো-মন্দ’ খতিয়ে দেখছে যে বাংলাদেশ। এ কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেছেন যে এতে যোগ দিলে বাংলাদেশ লাভবান হবে কি-না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

মঙ্গলবার (২০ ডিসেম্বর) ঢাকায় একটি রিসার্চ কলোকুইয়াম অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিআইআইএসএস) এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

ড. মোমেন বলেন, “ কোয়াড এবং ইন্দো-প্যাসিফিক ইকোনমিক (ফ্রেমওয়ার্ক) নিয়ে বিতর্ক হয়েছে। বিষয়টি বোঝার জন্য, আমরা বিআইএসএসকে উদ্যোগ নিতে অনুরোধ করেছি। আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। তারা এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।”

চতুর্ভুজ নিরাপত্তা সংলাপ সাধারণভাবে ‘চতুর্ভুজ’ নামে পরিচিত; এটি অস্ট্রেলিয়া, ভারত, জাপান এবং যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে একটি কৌশলগত নিরাপত্তা সংলাপ। এই বছরের জুন মাসে, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে ইন্দো-প্যাসিফিক ইকোনমিক ফ্রেমওয়ার্ক (আইপিইএফ) সম্পর্কে ব্রিফ করে। বাংলাদেশ আইপিইএফ-এর সাপ্লাই চেইন স্থিতিস্থাপকতা ভিত্তিগুলোর অতিরিক্ত তথ্য এবং কার্বোনাইজেশন-কে স্বাগত জানায়।

বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস সম্প্রতি বলেছেন যে যুক্তরাষ্ট্র এবং ১৩টি অংশীদার দেশ ইন্দো-প্যাসিফিক ইকোনমিক ফ্রেমওয়ার্কের জন্য আলোচনা শুরু করেছে। এই আলোচনাকে তিনি একটি ‘অভিনব অর্থনৈতিক ব্যবস্থা’ হিসাবে বর্ণনা করেছেন। তিনি বলেছেন যে এটি বাণিজ্য এবং বাণিজ্যের বাইরে গিয়ে ২১ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তাদের সম্মিলিত বিনিয়োগ আকাঙ্ক্ষাকে প্রতিফলিত করে।

রাষ্ট্রদূত পিটার হাস জানান, আইপিইএফ-এর সদস্যপদ এই অঞ্চলের অর্থনৈতিক বৈচিত্র্যের পাশাপাশি অংশীদার দেশগুলোর মধ্যে আন্তঃসংযোগ প্রতিফলিত করে; যা অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং উদ্ভাবনকে চালিত করে। আইপিইএফ-এর উদ্দেশ্য অন্যদের জন্য উন্মুক্ত এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক। রাষ্ট্রদূত বলেন, “আমরা এই বিষয়গুলো নিয়ে কাজ চালিয়ে যাব এবং বাংলাদেশ-সহ সব দেশের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক ভাবে আমাদের অর্থনৈতিক অংশীদারিত্ব বৃদ্ধি করব।”

বিআইআইএসএস এর চেয়ারম্যান রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন এবং সংস্থাটির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল শেখ পাশা হাবিব উদ্দিন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। তিন সেশনে বিভক্ত অনুষ্ঠানের প্রতিটি অধিবেশনে তিনজন বক্তা বাংলাদেশের জাতীয় স্বার্থের সঙ্গে সম্পর্কিত তাদের সাম্প্রতিক গবেষণা উপস্থাপন করেন।

XS
SM
MD
LG