অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আফগান নারীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় নিষিদ্ধ: কঠোর নিন্দা জানিয়েছে মুসলিম দেশগুলির


আফগান নারী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা কাবুলে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে দাঁড়িয়ে আছে, তালিবান নিরাপত্তা কর্মীদের দ্বারা তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ থামানো হয়েছে৷ ২১ ডিসেম্বর, ২০২২।

সৌদি আরব থেকে তুরস্ক পর্যন্ত, মুসলিম দেশগুলি সর্বসম্মতভাবে আফগান নারীদের উচ্চ শিক্ষা অর্জনে তালিবানের নিষেধাজ্ঞার নিন্দা করেছে।

তালিবান মঙ্গলবার ঘোষণা করেছে যে তারা নারীদের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া নিষিদ্ধ করেছে। ইসলামপন্থী নেতৃত্ব এক বছরেরও বেশি সময় আগে মেয়েদের জন্য মাধ্যমিক বিদ্যালয় বন্ধ করে দিয়েছে।

তালিবান কর্মকর্তারা বলেছেন যে তাদের নীতিগুলি ইসলামিক আইনশাস্ত্রের উপর ভিত্তি করে, তবে এটি এমন একটি দাবি যা অনেক সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম দেশ এবং ইসলামিক পণ্ডিতরা প্রত্যাখ্যান করেছেন।

মঙ্গলবার জারি করা এক বিবৃতিতে সৌদি আরব বলেছে, “ আফগান তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আফগান মেয়েদের বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার অধিকার অস্বীকার করার সিদ্ধান্তে পররাষ্ট্র মন্ত্রক বিস্ময় ও দুঃখ প্রকাশ করেছে এবং এই সিদ্ধান্তটি প্রত্যাহার করার আহ্বান জানায়।”

সংযুক্ত আরব আমিরাত বলেছে যে নারীদের বিশ্ববিদ্যালয়ে উপস্থিতির উপর নিষেধাজ্ঞা এবং "মেয়েদের মাধ্যমিক শিক্ষায় প্রবেশ নিষিদ্ধ করা মৌলিক মানবাধিকার লঙ্ঘন, ইসলামের শিক্ষার পরিপন্থী এবং তা দ্রুত প্রত্যাহার করা উচিত।"

তুরস্ক, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, কাতার এবং মুসলিম বিশ্বের অন্যান্য অনেক সরকার নারীদের কাজ এবং শিক্ষার উপর তালিবানের নিষেধাজ্ঞার নিন্দা জানিয়ে একই ধরনের বিবৃতি দিয়েছে।

বুধবার, অর্গানাইজেশন ফর ইসলামিক কো-অপারেশন বলেছে, "ওআইসি, যদিও এখনও ডি ফ্যাক্টো প্রশাসনের সাথে তার সম্পৃক্ততার নীতিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, তবে এই সিদ্ধান্তকে নিন্দা না করে পারে না, কাবুল কর্তৃপক্ষকে তাদের প্রতিশ্রুতির মধ্যে সামঞ্জস্য বজায় রাখার স্বার্থে এটি প্রত্যাহার করার আহ্বান জানিয়েছে।"

কোনো দেশ বা ইসলামিক সংগঠন এখন পর্যন্ত নারী শিক্ষা ও কাজের বিষয়ে তালিবানের নীতিকে সমর্থন করেনি।

বৃহস্পতিবার, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন তা্লিবানের নিষেধাজ্ঞার ইসলামিক দেশগুলি সহ বিশ্বব্যাপী নিন্দার প্রতি সমর্থন প্রদানের প্রশংসা করেছেন।

বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এক যৌথ বিবৃতিতে অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, নেদারল্যান্ডস, নরওয়ে, স্পেন, সুইজারল্যান্ড, যুক্তরাজ্য এবং যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা তালিবানের নিষেধাজ্ঞার নিন্দা জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, "আমরা তালিবানকে অবিলম্বে নারী ও মেয়েদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার ক্ষেত্রে নতুন নিপীড়নমূলক পদক্ষেপ ত্যাগ করার এবং বিলম্ব না করে, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে মেয়েদের প্রবেশাধিকার নিষিদ্ধ করার বিদ্যমান সিদ্ধান্তকে প্রত্যাহার করার আহ্বান জানাই।"

আফগানিস্তানের ভিতরে এবং বাইরের আফগানরাও তালিবান নীতির ব্যাপক নিন্দা করেছে।

XS
SM
MD
LG