অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রিজার্ভ চুরি মামালা: ৬৯ বার পেছাল তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার তারিখ


ম্যানিলার ফিলিপাইন সিনেটে বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে চুরি করা ৮১ মিলিয়ন অর্থ পাচারের বিষয়ে সিনেটের শুনানির সময় একজন ভুয়া ব্যাংক আমানতকারীর ছবি দেখাচ্ছেন আরসিবিসি আইনজীবী ম্যাসেল ফার্নান্দেজ-এস্তাভিলো। (ফাইল ছবি)

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার তারিখ পিছিয়েছে। আদালত নতুন তারিখ ধার্য করেছেন ১৪ ফেব্রুয়ারি। এ নিয়ে মামলার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার সময় ৬৯ বার পেছানো হলো। মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য ছিল রবিবার (১ জানুয়ারি)। তবে, মামলার তদন্ত সংস্থা সিআইডি প্রতিবেদন দাখিল করতে পারেনি। তাই ঢাকার মহানগহর হাকিম রাজেশ চৌধুরী প্রতিবেদন দাখিলের নতুন তারিখ নির্ধারণ করেন।

২০১৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি করে নেয় হ্যাকাররা। বাংলাদেশের ভেতরে সক্রীয় কোনো একটি চক্রের সহায়তায়, হ্যাকার গ্রুপ রিজার্ভের অর্থপাচার করে বলে সংশ্লিষ্টদের ধারণা।

এ ঘটনায় ২০১৬ সালের ১৫ মার্চ বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড বাজেটিং ডিপার্টমেন্টের উপপরিচালক জোবায়ের বিন হুদা বাদী হয়ে মতিঝিল থানায় মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।

XS
SM
MD
LG