অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে আপাতত সংবিধান সংশোধনের কোনো পরিকল্পনা নেই—আইনমন্ত্রী আনিসুল হক


আইনমন্ত্রী আনিসুল হক

বাংলাদেশ সরকারের আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়কমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন, রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে আপাতত সংবিধান সংশোধনের কোনো পরিকল্পনা নেই। নির্ধারিত সময়েই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন হবে।

তিনি বলেন, ‘বর্তমান রাষ্ট্রপতি পর পর দুই টার্ম থেকেছেন, সংবিধান অনুসারে তিনি আর থাকতে পারবেন না’।

বুধবার (৪ জানুয়ারি) রাজধানী ঢাকার বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে অধস্তন আদালতের বিচারকদের জন্য আয়োজিত এক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক এ কথা বলেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের বর্তমান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ২০১৮ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। ২৪ এপ্রিল তিনি রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপখ গ্রহণ করেন।

বিএনপি (বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল) নেতাদের জামিনের প্রসঙ্গে আনিসুল হক বলেন, ‘আদালতের কাজে আইন মন্ত্রণালয় তো নয়ই, সরকারের অন্য কোনো মন্ত্রণালয়ও হস্তক্ষেপ করছে না। আদালত যদি মনে করে থাকে, যে জামিন দেওয়া যাবে, আদালত জামিন দিয়েছে। যদি মনে করে থাকে যে, জামিন দেওয়া যাবে না, তখন দেয়নি’।

তিনি আরও বলেন, ‘এটা অহরহ হয়ে থাকে যে নিম্ন আদালত জামিন দেননি, উচ্চ আদালত জামিন দিয়েছেন। আবার এমনও হয়, নিম্ন আদালত জামিন দিয়েছেন, উচ্চ আদালত সেখানে হস্তক্ষেপ করে তা আটকে দিয়েছেন। এটা নতুন কিছু না বাংলাদেশে। এটা নিয়ে যারা অভিযোগ করছেন, তারা হয়তো জাতীয় পার্টি-বিএনপির আমল দেখেননি বা দেখলেও তারা সেইসব অভিজ্ঞতার কথা এখন বলতে চান না’।

যুক্তরাজ্যের সহযোগিতায় অধস্তন আদালতের বিচারকদের জন্য প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে । চার দিনের এ কর্মশালায় বাংলাদেশের বিচার বিভাগের বিভিন্ন সমস্যা যেমন মামলাজট, মামলা ব্যবস্থাপনা, দ্রুত মামলা নিষ্পত্তির পন্থা ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা করা হবে।

আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মো. গোলাম সারওয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে যুক্তরাজ্যের হাইকোর্টের জজ বিচারপতি মওরা ম্যাকগোয়ান ও যুক্তরাজ্যের সার্কিট জজ খাতুন সাপনারা বক্তব্য দেন।

XS
SM
MD
LG