অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিরিয়ায় জোট বাহিনীর ঘাঁটিকে লক্ষ্য করে রকেট হামলা


সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র-সমর্থিত সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস-এর বিমান হামলায় ইসলামিক স্টেট- জঙ্গিদের নিয়ন্ত্রিত থাকা শেষ অঞ্চল বাঘৌজের উপর ধোঁয়া উঠছে। ১১ মার্চ, ২০১৯। (ফাইল ছবি)

বাগদাদে ইরান ও ইরাক ইরানের কুদস বাহিনীর নেতা কাসেম সোলেইমানির মৃত্যুর তৃতীয় বার্ষিকী উদযাপনের একদিন পর, যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় কমান্ড সেন্টকম বলছে, বুধবার উত্তর-পূর্ব সিরিয়ায় জোট বাহিনীকে লক্ষ্য করে দুটি রকেট আক্রমণ চালানো হয়েছে।

সেন্টকমের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল ডেভ ইস্টবার্ন ভিওএ-কে বলেন, সিরিয়ার স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় "মিশন সাপোর্ট সাইট কনোকো" নামে পরিচিত ১০৭ মিলিমিটারের একটি রকেট ওই এলাকাকে লক্ষ্য করে নিক্ষেপ করা হয়। ।

সেন্টকমের মুখপাত্র কর্নেল জো বুচিনো বলেছেন, "এই ধরনের হামলা জোট বাহিনী এবং বেসামরিক জনগণকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলে এবং সিরিয়াসহ ওই অঞ্চলের কষ্টে অর্জিত স্থিতিশীলতা ও নিরাপত্তাকে ক্ষুন্ন করে।"

হামলার দায় কেউই এখন পর্যন্ত স্বীকার করেনি। তবে, ইরান-সমর্থিত মিলিশিয়ারা এর আগে সিরিয়া ও ইরাক উভয় স্থানেই যুক্তরাষ্ট্র ও জোট বাহিনীর বিরুদ্ধে রকেট ও ড্রোন হামলা চালিয়েছিল।

এক বছর আগে, আমেরিকান বাহিনী ৩ এবং ৪ জানুয়ারী ইরান-সমর্থিত সন্দেহভাজন মিলিশিয়াদের একটি হামলার পরিকল্পনা নস্যাৎ করে করে দেয়। হামলাকারীরা বিস্ফোরক-বোঝাই বেশ কয়েকটি ড্রোন উড্ডয়ন করেছিল, যেগুলি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানার আগেই আইন আল-আসাদ বিমান ঘাঁটির কাছে এবং বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে গুলি করে ভূপতিত করা হয়। একটি ড্রোনের ডানায় লেখা ছিল "সোলেইমানির মৃত্যুর প্রতিশোধ"।

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড কোরের বিদেশী অপারেশন শাখা, এলিট কুদস ফোর্সের প্রধান ছিলেন সোলেইমানি। ২০২০ সালের ৩ জানুয়ারী, যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হামলায়, ইরাকের পপুলার মোবিলাইজেশন ফোর্সের শীর্ষ কমান্ডার আবু মাহদি আল-মুহান্দিস-সহ সোলেইমানি নিহত হন।

মৃত্যুর সময়, যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসনের কর্মকর্তারা বলেছিলেন, সোলেইমানি একটি "আসন্ন" হামলার পরিকল্পনায় জড়িত ছিলেন, যা আমেরিকানদের জীবনকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলতো।

বুধবারের রকেট হামলাগুলি অপারেশন-ক্ল সোর্ড নামে একটি তুর্কি বিমান আক্রমণের সাথেও মিলে যায়, যা ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র সিরিয়ায় কুর্দি বাহিনীকে লক্ষ্যবস্তু করেছে।

সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস এর তথ্য মতে, ডিসেম্বরে উত্তর সিরিয়ায় তুর্কি বাহিনীর হামলায় ১৬ জন বেসামরিক লোক নিহত হয়।

তুরস্কের অভিযোগ, এসডিএফের কিছু সদস্য কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি বা পিকেকে-এর অংশ। আঙ্কারা এবং ওয়াশিংটন উভয়ই পিকেকেকে একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসাবে বিবেচনা করে, তবে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী পিকেকে-র সাথে এসডিএফকে যুক্ত করে না।

হোয়াইট হাউজের জাতীয় নিরাপত্তার মুখপাত্র জন কারবি গত মাসে বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্র চায় না তুরস্ক উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ায় সামরিক হামলা চালাক, যদিও তুরস্কের আত্মরক্ষার অধিকারকে যুক্তরাষ্ট্র স্বীকার করে।

XS
SM
MD
LG