অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কাল থেকে শুরু হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা


বিশ্ব ইজতেমা

মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় সমাবেশ বিশ্ব ইজতেমা আগামীকাল শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) ফজরের নামাজের পর শুরু হচ্ছে। ইজতেমায় অংশ নিতে তাবলীগের মুসুল্লীদের আগমনে এরই মাঝে টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরের ইজতেমা মাঠ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে গেছে।

এবারও ইজতেমাকে ঘিরে নিরাপত্তা বাহিনীর হাজার হাজার কর্মী তৎপর রয়েছেন। তবে ইজতোমার সার্বিক প্রস্তুতি নিয়ে সন্তুষ্টি রয়েছে তাদের। শীতে ঠাণ্ডাজনিত রোগবালাই বেড়ে যেতে পারে, তাই স্বাস্থ্যক্যাম্প বসানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে একটি বেসরকারি স্বাস্থ্য ক্যাম্প উদ্বোধন করেছেন বাংলাদেশ সরকারের যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

জানা গেছে, টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমায় বার্ধক্যজনিত কারণে এরই মধ্যে দুই মুসল্লি মারা গেছেন।

ইসলাম ও ইজতেমার দাওয়াতের কাজে তাবলীগ জামাতের যারা মসজিদে মসজিদে বিভিন্ন মেয়াদের চিল্লায় ছিলেন তারা এরই মধ্যে প্যান্ডেলে ঠাঁই নিয়েছেন। লাখ লাখ মুসুল্লির অবস্থানের জন্য বিশাল প্যান্ডেলকে খিত্তায় খিত্তায় ভাগ করা হয়েছে। জেলা অনুযায়ী খিত্তায় খিত্তায় ঠাঁই না পেয়ে অনেকেই আশ্রয় নিয়েছেন মাঠের পাশে খোলা আকাশের নিচে।

তবে মুসুল্লিদের আগমন এবার বেড়েছে এবং আগের চেয়ে নানা সুযোগ-সুবিধা বাড়লেও আরও বাড়ানোর দাবি রয়েছে তাদের।

এদিকে ইজতেমা ময়দান পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি জানান, ইজতেমার ময়দানে এবং বিমানবন্দর থেকে আসা-যাওয়ার পথে বিদেশি মুসল্লিদের জন্য কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম জানিয়েছেন, দেশীয় মুসল্লিদের জন্য ময়দান ও ময়দানের আশপাশের এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হবে।

প্রতিবারের মতো এবারও ওয়াচ টাওয়ার, সিসি ক্যামারায় মনিটরিং, সাদা পোশাকে গোয়েন্দা তৎপরতাসহ নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে ইজতেমা মাঠকে ঘিরে। ইজতেমার দেশি-বিদেশি শীর্ষ পর্যায়ের মুরৃব্বিরা তাবলীগের ৬ ওসুলের ওপর বয়ান করবেন।

গত কয়েক বছর থেকে তাবলীগের দুটি উপদল আলাদা করে একই জায়গায় ইজতেমা করছেন। প্রথম পর্যায়ে মাওলানা হাফেজ জোবায়ের পন্থি এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে ভারতের মাওলানা সাদ পন্থি তাবলীগ জামায়াত সদস্যরা ইজতেমা করবেন। দুই উপদলের ইজতেমায় দেশীয় মুসুল্লিদের সঙ্গে বিদেশি মুসল্লিরা এই ময়দানে সমবেত হবেন এবাদত-বন্দেগী ও আল্লাহকে রাজি খুশি করার মাধ্যমে পরকালের চির শান্তির আশায়।

করোনা মহামারি পরিস্থিতির কারণে গত দুই বছর বিশ্ব ইজতেমা হয়নি। দুই বছর পর এবার দুই পর্বের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব ১৩ থেকে ১৫ জানুয়ারি এবং মাঝখানে চার দিন বিরতি দিয়ে ২০ থেকে ২২ জানুয়ারি দ্বিতীয় পর্বের বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে।

রেওয়াজ অনুযায়ী আখেরী মোনাজাত হবে প্রতি পর্বের ইজতেমার শেষ দিনে। আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় পর্বের বিশ্ব ইজতেমার সমাপ্তি ঘটবে।

XS
SM
MD
LG