অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পোল্যান্ডে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউক্রেনের শীর্ষ সামরিক নেতাদের বৈঠক


যুক্তরাষ্ট্র সেনাবাহিনীর দেওয়া এই ছবিতে, জার্মানির গ্রাফেনউয়ার ট্রেনিং এরিয়া-তে আমেরিকান সেনাদের সাথে দেখা করেছেন, পেন্টাগনের জয়েন্ট চিফস অফ স্টাফের চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক মিলি৷ ১৬ জানুয়ারী, ২০২৩।

যুক্তরাষ্ট্রের সেনা জেনারেল মার্ক মিলি এবং ইউক্রেনীয় জেনারেল ভ্যালেরি জালুঝনি মঙ্গলবার তাদের প্রথম মুখোমুখি আলোচনায় দক্ষিণ-পূর্ব পোল্যান্ডের এক সামরিক ঘাঁটিতে মিলিত হন। তাঁদের এই বৈঠক ১১ মাস ধরে চলা রাশিয়ার আক্রমণের বিরুদ্ধে ইউক্রেনের প্রতিরক্ষাকে সমর্থন করে দুই দেশের ক্রমবর্ধমান সমন্বয়ের একটি স্মারক বৈঠক।

পেন্টাগনের জয়েন্ট চিফস অফ স্টাফের চেয়ারম্যান মার্ক মিলি, এবং ভ্যালেরি জালুঝনি ইউক্রেন-পোল্যান্ড সীমান্তের কাছে একটি অজ্ঞাত স্থানে প্রায় দুই ঘন্টা কথা বলেছেন। গত ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর হামলার পর থেকে দুই শীর্ষ সামরিক প্রধান প্রায়ই কথা বললেও, এটাই তাদের প্রথম সরাসরি বৈঠক।

যুক্তরাষ্ট্র এবং তার পশ্চিমা মিত্ররা রাশিয়ার বিমান হামলাকে প্রতিহত করার জন্য ইউক্রেনে কোটি কোটি ডলার মূল্যের অস্ত্রশস্ত্র পাঠিয়ে তুলেছে। ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে স্থল যুদ্ধে একটা অচলাবস্থা দেখা দেয়, ওই যুদ্ধে কোনো পক্ষই সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নিতে সক্ষম হয়নি। এই সব ঘটনার প্রেক্ষাপটে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হল।

ইউক্রেনীয় বাহিনীর সাথে যুদ্ধ করার জন্য আমেরিকা তাদের সৈন্য না পাঠানোর অবস্থান বজায় রাখলেও, সম্প্রতি ইউক্রেনে প্যাট্রিয়ট এয়ার ডিফেন্স ক্ষেপনাস্ত্র পাঠানো এবং ইউক্রেনের সামরিক ঘাঁটিতে ইউক্রেনীয় সৈন্যদের এটা কিভাবে ব্যবহার করতে হয়, সেই প্রশিক্ষণ দিতে সম্মত হয়ে, যুদ্ধে আরও কৌশলগতভাবে জড়িত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

মিলির মুখপাত্র কর্নেল ডেভ বাটলার মিলির সাথে ভ্রমণরত দু’জন সংবাদদাতাকে বলেন, তিনি এবং ইউক্রেনের সামরিক নেতার ব্যক্তিগতভাবে দেখা করা গুরুত্বপূর্ণ ছিল বলে মনে করেন।

বাটলার আরও বলেন, এছাড়া, জার্মানির গ্রাফেনউয়ার ট্রেনিং এরিয়াতে শুরু হওয়া ইউক্রেনীয় বাহিনীর জন্য নতুন প্রশিক্ষণ কার্যক্রমও পর্যবেক্ষণ করবেন মিলি।

মিলি সোমবার সেখানে প্রায় দুই ঘন্টার সফরের সময় ৬০০ ইউক্রেনীয় সৈন্যের অস্ত্র চালানো পর্যবেক্ষণ করেন। যুক্তরাষ্ট্র আশা করে, এটি ইউক্রেনীয় সৈন্যদের আক্রমণ চালানোর জন্য বা রুশ আক্রমণ মোকাবেলা করার জন্য আরও ভালভাবে প্রস্তুত করবে।

অন্যদিকে, যুদ্ধক্ষেত্রে রাশিয়া সম্প্রতি দাবি করেছে, তারা ছোট লবণ-খনির শহর সোলেদারের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে, যদিও ইউক্রেন বলেছে যে তার সৈন্যরা এখনও সেখানে যুদ্ধ করছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি সোমবার তাঁর রাতের ভাষণে বলেছেন, ডিনিপ্রোতে হামলা ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহের বিষয়ে দ্রুত এবং আরও সমন্বিত সিদ্ধান্তের প্রয়োজনীয়তাকেই তুলে ধরে।

তবে, ক্রেমলিনের মুখপাত্র দ্যমিত্রি পেসকভ বলেছেন, রুশ বাহিনী "আবাসিক ভবন বা সামাজিক অবকাঠামোতে হামলা করে না। তারা কেবলসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালায়।" পেসকভ আরও বলেন, ডিনিপ্রোতে যা ঘটেছে তা ইউক্রেনের বিমান প্রতিরক্ষার কারণেই ঘটেছে।

এদিকে, ইউক্রেনে যুদ্ধ করা রুশ ভাড়াটে সেনার দল ওয়াগনার গ্রুপের সাবেক কমান্ডার বলে দাবি করা এক ব্যক্তি গত সপ্তাহে পালিয়ে যাওয়ার পর নরওয়েতে আশ্রয় চাইছেন।

নরওয়ের কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শুক্রবার ভোরে রাশিয়া-নরওয়ে সীমান্তের কাছে সীমান্তরক্ষীরা এক ব্যক্তিকে আটক করেছে।

আন্দ্রে মেদভেদেভের একজন আইনজীবী সংবাদ সংস্থাকে বলেছেন, মেদভেদেভ নরওয়েতে আছেন এবং আশ্রয় প্রার্থনা করেছেন।

আইনজীবী ব্রাইনজুল্ফ রিসনেস বলেছেন, "তিনি ঘোষণা করেছেন, যুদ্ধাপরাধের তদন্তকারী ব্যক্তিদের কাছে তিনি ওয়াগনার গ্রুপে তার অভিজ্ঞতার কথা বলতে ইচ্ছুক।"

এই প্রতিবেদনের জন্য কিছু তথ্য এপি, এএফপি, এবং রয়টার্স থেকে নেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG