অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জনগণের অধিকার লঙ্ঘনের দায়ে ইরানকে জবাবদিহিতার আওতায় আনার অঙ্গীকার যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেনের


যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন এবং ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেমস ক্লেভারলি ওয়াশিংটনে স্টেট ডিপার্টমেন্টে সংবাদ সম্মেলন শেষে হাত মেলান। ( ১৭ জানুয়ারী, ২০২৩)

যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রিটেন মঙ্গলবার বলেছে, তারা জনগণের অধিকার লঙ্ঘনের জন্য ইরানকে জবাবদিহিতার আওতায় আনবে। তারা ইরানে এক ব্রিটিশ ইরানি নাগরিকের মৃত্যুদণ্ড দেয়ার নিন্দা পুনর্ব্যক্ত করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন সাংবাদিকদের বলেন, গত সপ্তাহে আলী রেজা আকবরির মৃত্যুদণ্ড ইরান সরকারের নির্যাতনের প্যাটার্নের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ, যার মধ্যে রয়েছে “আটক, নির্যাতন, জোরপূর্বক স্বীকারোক্তি, অন্যায্য মৃত্যুদণ্ড।“

ব্লিংকেন বলেন, আমরা আকবরির মৃত্যুদন্ড কার্যকর করায় ততটাই মর্মাহত হয়েছি যতটা হয়েছি গত কয়েক মাস ধরে ইরানের রাস্তায় বিক্ষোভের পর গণগ্রেপ্তার, মিথ্যা বিচার, মৃত্যুদণ্ড, যৌন সহিংসতাকে প্রতিবাদ দমনের হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করায়।“

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেমস ক্লেভারলি মঙ্গলবার ওয়াশিংটনে ব্লিংকেনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বলেন, “ব্রিটেন ও যুক্তরাষ্ট্র উভয়েই ইরানের সাহসী ও আত্মমর্যাদাসম্পন্ন জনগণের পাশে রয়েছে।“

তিনি বলেন, ইরানের প্রসিকিউটর জেনারেলসহ আকবরির মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের সঙ্গে জড়িতদের এবং বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে দমনপীড়নে জড়িত ইরানের নৈতিকপুলিশ ও বিচার বিভাগের সদস্যদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ব্রিটেন।

তিনি আরও বলেন, ইরানের জনগণ তাদের দেশের বর্তমান ব্যবস্থায় সন্তুষ্ট নয় এবং তারা সরকারের কাছ থেকে পরিবর্তন দেখতে চায়।

XS
SM
MD
LG