অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

প্রথম ইলিনয় মুসলিম আমেরিকান আইনপ্রণেতারা বিভিন্ন আইনসভায় কাজ শুরু করেন


ইলিনয়ের প্রথম মুসলিম আমেরিকান আইনপ্রণেতারা বিভিন্ন আইনসভায় কাজ শুরু করেছেন।

পুরনো এবং নতুন- দুটি স্টেট ক্যাপিটল বিল্ডিং-এর উঁকি দেয়া গম্বুজগুলোর ছায়ায় শহরের মধ্য দিয়ে হাঁটার সময় ইলিনয় রাজ্যের স্প্রিংফিল্ড জুড়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট আব্রাহাম লিংকন এবং বারাক ওবামার রাজনৈতিক জীবনের শুরুর দিনগুলোকে চিহ্নিতকারী ইতিহাসের বাঁকগুলো হারানো কঠিন।

বর্তমান ইলিনয় স্টেট ক্যাপিটলের প্রবেশদ্বারে “মহান মুক্তিদাতা”-এর একটি ভাষ্কর্যের সামনে দাঁড়িয়ে নাবিলা সৈয়দ বলেন, “এটি জেনে পরাবাস্তব অনুভূতি হয় যে, আব্রাহাম লিংকন এক সময়ে আমার মতো একই স্থানে ছিলেন।”

ইলিনয়ে ১০৩ তম আইনসভার অধিবেশন চলছে। সৈয়দ এবং তার সহকর্মী আবদেলনাসের রশিদ সেখানে তাদের নিজস্ব ইতিহাস তৈরি করতে চলেছেন। তারাই প্রথম মুসলিম আমেরিকান আইনপ্রণেতা যারা এই রাজ্যের আইনসভায় নির্বাচিত হয়েছেন।

২৩ বছর বয়সী সৈয়দ ইলিনয়েতে নির্বাচিত সর্বকনিষ্ঠ নারীদের মধ্যেও রয়েছেন এবং ইলিনয় হাউজ অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস-এ প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ স্পিকারের নেতৃত্বে প্রথম নারী রিপাবলিকান হাউজ নেতা এবং বৃহত্তম এশীয় আমেরিকান ককাসের নেতৃত্বে অন্যান্য উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিদের মধ্যে সাধারণ পরিষদে তার মেয়াদ শুরু করেন।

রশিদ বলেন, “আইনসভায় নির্বাচিত প্রথম ফিলিস্তিনি হিসেবে এবং দুজন মুসলমানের একজন হিসেবে আমিও এমন অনেক মানুষের কণ্ঠস্বর বহন করি যারা প্রান্তিক হয়ে পড়েছেন এবং প্রতিনিধিত্বের জন্য আকুল হয়ে আছেন। এবং আমি এই দায়িত্বটি অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে নিই।” তিনি এখন একটি বৃহৎ ল্যাটিনো জনসংখ্যাসহ শিকাগোর শহরতলির জেলার প্রতিনিধিত্ব করেন।

XS
SM
MD
LG