অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সরকারি কর্মকর্তাদের অবসরের পরই নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ না দেওয়া কেন অবৈধ নয়—হাইকোর্টের রুল


বাংলাদেশের হাইকোর্ট।

অবসরের পর তিন বছর অতিবাহিত না হওয়া পর্যন্ত সামরিক ও বেসামরিক সরকারি কর্মকর্তাদের জাতীয় সংসদের নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ না দেওয়ার বিধান কেন অসাংবিধানিক হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শামীম কামালের করা রিটের শুনানি নিয়ে বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) বিচারপতি জাফর আহমেদ ও বিচারপতি মো. বশির-উল্লাহর হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রুল জারি করেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার, আইনসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, জনপ্রশাসন সচিব, স্থানীয় সরকার সচিব ও লালমনিরহাট জেলা প্রশাসককে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

অবসরের তিন বছর পার না হওয়া পর্যন্ত সামরিক-বেসামরিক সরকারি কর্মকর্তাদের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ না থাকার ‘গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ ১৯৭২–এর ১২(১) (চ)’ ধারার বিধান চ্যালেঞ্জ করে গত ১৫ জানুয়ারি রিট দায়ের করেন সদ্য অবসরে যাওয়া এই ব্রিগেডিয়ার জেনারেল।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার হাসান এম এস আজিম।

নির্বাচনে সরকারি চাকরিজীবীদের অযোগ্যতার বিষয়ে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও)-১৯৭২–এর ১২ (১) (চ) ধারায় বলা হয়েছে, ‘প্রজাতন্ত্রের বা সংবিধিবদ্ধ সরকারি কর্তৃপক্ষের বা প্রতিরক্ষা কর্ম বিভাগের কোনো চাকরি থেকে পদত্যাগ করেছেন বা অবসরে গমন করেছেন এবং উক্ত পদত্যাগ বা অবসর গমনের পর তিন বৎসর অতিবাহিত না হয়ে থাকে তাহলে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন না’।

এ বিধান চ্যালেঞ্জ করে বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. শামীম কামাল হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন।

তিনি লালমনিরহটের আদিতমারীর বাসিন্দা। তার বাবা মজিবুর রহমান সাতবার এমপি নির্বাচিত হন।

XS
SM
MD
LG