অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

৩ পুলিশ অফিসারকে হত্যা করেছে পাকিস্তানি তালিবান


পাকিস্তানের খাইবার জেলার মানচিত্র।

উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানের কর্তৃপক্ষ বৃহস্পতিবার বলেছে, জঙ্গিরা একটি পুলিশ ফাঁড়িতে বন্দুক ও বোমা হামলা চালিয়েছে। এতে নিরাপত্তা বাহিনীর তিন সদস্য নিহত হয়েছেন।

নিষিদ্ধ ঘোষিত তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান (টিটিপি) গোষ্ঠী, যারা পাকিস্তানি তালিবান নামেও পরিচিত, আফগানিস্তানের সীমান্তবর্তী খাইবার জেলায় রাতের বেলার ভয়াবহ এই অভিযানের দায় স্বীকার করেছে।

জেলা পুলিশ প্রধান, ইমরান খান সাংবাদিকদের বলেছেন, একজন আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী সহ কমপক্ষে চারজন ভারী অস্ত্রধারী হামলাকারী প্রাঙ্গণে প্রবেশ করেছিল। এই আক্রমণকে তিনি একটি "সমন্বিত আক্রমণ" বলে অভিহিত করেন।

খান বলেন, “একজন আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী নিজেকে উড়িয়ে দেওয়ার আগে তারা পুলিশ কর্মকর্তাদের দিকে গুলি চালায় এবং হ্যান্ড গ্রেনেড ছোড়ে। তার সহযোগীরা পরে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।”

টিটিপি একটি বিবৃতিতে দাবি করেছে, পুলিশ চৌকিতে হামলার পিছনে একজন একা আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী ছিল, যদিও গোষ্ঠীটি প্রায়শই তাদের আক্রমণ সম্পর্কে বিস্তারিত বিবরণ প্রকাশ করে থাকে।

পাকিস্তানি তালিবান ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে যাকে তারা পাকিস্তানে "ইসলামী ব্যবস্থা" বলে সেটি চাপিয়ে দেয়ার জন্য দেশটিতে মারাত্মক বিদ্রোহ চালিয়ে আসছে এবং হাজার হাজার মানুষকে হত্যা করেছে।

টিটিপি নভেম্বরে, সরকারের সাথে এক মাসব্যাপী নড়বড়ে যুদ্ধবিরতি প্রত্যাহার করে, দুই প্রতিপক্ষের মধ্যে শান্তি আলোচনাকে ব্যাহত করে এবং সারা দেশে জঙ্গি হামলার তীব্রতা বাড়ায়।

২০২১ সালের আগস্টে যুদ্ধ-বিধ্বস্ত দেশটির নিয়ন্ত্রণ পুনরুদ্ধার করার পর আফগানিস্তানের ইসলামপন্থী তালিবান দ্বারা আলোচনার মধ্যস্থতা এবং আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল।

টিটিপি আফগান তালিবানের একটি শাখা এবং ঘনিষ্ঠ মিত্র। এর নেতৃত্ব আফগান মাটিতে আশ্রয় নিয়েছে। ইসলামাবাদ বলেছে, টিটিপি কাবুলের সাথে তার সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক রাখে অথচ তারাই উত্তেজনার উৎস।

পাকিস্তানি তালিবানকে বৈশ্বিক সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

XS
SM
MD
LG