অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মোদির উপর প্রামাণ্যচিত্রকে অপপ্রচার বলছে ভারত, গভীরভাবে গবেষণালব্ধ বলছে বিবিসি


ভারতের সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের প্রথম দিনে, নয়াদিল্লীতে গণমাধ্যমের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (মাঝে), ৭ ডিসেম্বর ২০২২। (ফাইল ফটো)

ভারতের পশ্চিমাঞ্চলের গুজরাট রাজ্যে ২০০২ সালে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার সময়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ভূমিকা পর্যালোচনা করা বিবিসি’র একটি প্রামাণ্যচিত্রকে ভারত সরকার “অপপ্রচার” হিসেবে আখ্যায়িত করে এর সমালোচনা করেছে। অপরদিকে বিবিসি বলছে যে, দুই পর্বের এই প্রামাণ্যচিত্রটি “গভীরভাবে গবেষণালব্ধ”।

বিবিসি বলছে; ইন্ডিয়া: দ্য মোদি কোয়েশ্চান নামের ডকুমেন্টারিটি “ভারতের সংখ্যাগরিষ্ঠ হিন্দু ও সংখ্যালঘু মুসলিমদের মধ্যকার উত্তেজনা বিশ্লেষণ করেছে এবং সেই উত্তেজনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মোদির রাজনীতিকে তুলে ধরেছে।” প্রামান্যচিত্রের প্রথম পর্বটি মঙ্গলবার ব্রিটেনে সম্প্রচারিত হয়েছে। দ্বিতীয় পর্ব সম্প্রচারিত হবে আগামী সপ্তাহে।

গুজরাটে ঐ সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার সময় মোদি ঐ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন।তিনি ২০১৪ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হন। ঐ সহিংসতায় ১,০০০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হন, যাদের বেশিরভাগই ছিলেন মুসলিম। হিন্দু তীর্থযাত্রীদের বহনকারী একটি ট্রেনে আগুন ধরিয়ে দিলে ঐ সহিংসতা শুরু হয়েছিলো। ঐ আগুনের ঘটনায় নিহত হয়েছিলেন ডজনকয়েক মানুষ।

প্রামাণ্যচিত্রে একটি অপ্রকাশিত প্রতিবেদনের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। বিবিসি বলছে যে ঐ প্রতিবেদনটি তারা ব্রিটেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছ থেকে পেয়েছে। বিবিসির মতে, ঐ প্রতিবেদনে দাঙ্গা চলাকালে মোদির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয় এবং দাবি করা হয় যে, তিনি সেই “সেই দায়মুক্ত পরিবেশ সৃষ্টির” জন্য “সরাসরি দায়ী” ছিলেন; যা ঐ সহিংসতার সুত্রপাত ঘটায়।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচী বৃহস্পতিবার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সংবাদদাতাদের প্রশ্নের উত্তরে বলেন, এতে “পক্ষপাতিত্ব, বস্তুনিষ্ঠতার অভাব ও অনায়াসে অমার্জিত ঔপনিবেশিক মানসিকতা দেখা গেছে।”েএই তৈরির পেছনের উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন তুলে তিনি। বলেন এটি “একটি পরিকল্পিত সম্মানহানিকর কাহিনী দেখানোর উদ্দেশ্যে তৈরি”।

বাগচী বলেন, “এটি আমাদের এর উদ্দেশ্য সম্পর্কে, এটির পেছনের কারণ সম্পর্কে ভাবিয়ে তোলে এবং খোলাখুলিভাবে বলতে গেলে আমরা এমন প্রচেষ্টাকে কোন গুরুত্ব দিতে চাই না।”


XS
SM
MD
LG