অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারত প্রধানমন্ত্রী মোদির বিষয়ে বিবিসির ‘শত্রুভাবাপন্ন’ প্রামাণ্যচিত্র নিষিদ্ধ করেছে


মুম্বাই-তে ১৯ জানুয়ারি ২০২৩ তারিখে এক র‍্যালিতে বক্তব্য রাখছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ভারত সরকার বলেছে যে তারা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি-কে নিয়ে তৈরি করা বিবিসি’র এক প্রামাণ্যচিত্রের লিংক শেয়ার করা ভিডিও ও টুইটগুলো নিষিদ্ধ করেছে। প্রামাণ্যচিত্রটি ২০০২ সালের সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার সময়ে মোদির ভূমিকার বিষয়ে তৈরি। ভারত সরকার সেটিকে “শত্রুভাবাপন্ন অপপ্রচার ও ভারত বিরোধী জঞ্জাল” বলেছে।

বিবিসি’র প্রোগ্রামটিতে অভিযোগ করা হয়েছে যে হিন্দু জাতীয়তাবাদী মোদি, যিনি সেসময়ে গুজরাট রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন, তিনি সেখানে হতে থাকা ব্যাপক সহিংসতায় নিরব থাকতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছিলেন। ঐ সহিংসতায় অন্তত ১,০০০ জনের মৃত্যু হয়, যাদের বেশিরভাগই সংখ্যালঘু মুসলিম ছিলেন।

সরকারের এক উপদেষ্টা কাঞ্চন গুপ্ত শনিবার টুইটারে বলেন যে আইটি নিয়মের অধীনে ভারত সরকার জরুরি ক্ষমতা প্রয়োগ করে প্রামাণ্যচিত্রটি ও সেটির অংশবিশেষকে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করা থেকে নিষিদ্ধ করেছে।

তিনি বলেন, “প্রামাণ্যচিত্রের আড়ালে @BBCWorld এর শেয়ার করা ভিডিও শত্রুভাবাপন্ন অপপ্রচার ও ভারত বিরোধী জঞ্জাল, @YouTube ও টুইটের মাধ্যমে শেয়ার করা বিবিসির এই প্রামাণ্যচিত্রটির লিংকগুলো ভারতের সার্বভৌম আইন ও নিয়মের অধীনে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।”

ইউটিউবের ভিডিও লিংক সহ ৫০টি টুইট সরিয়ে ফেলতেও টুইটারের প্রতি নির্দেশ জারি করা হয়।

গুপ্ত বলেন, ইউটিউব ও টুইটার, উভয়ই নির্দেশনা মেনে কাজ করেছে।

এ বিষয়ে মন্তব্যের জন্য রবিবার দুইটি প্রতিষ্ঠানের একটিকেও পাওয়া যায়নি।

ইন্ডিয়া: দ্য মোদি কোয়েশ্চন নামের প্রামাণ্যচিত্রটির অংশবিশেষ সম্বলিত বেশ কয়েকটি টুইট রবিবারও দেখতে পাওয়া গিয়েছে। প্রামাণ্যচিত্রটি বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্রের এই দেশে সম্প্রচারিত হয়নি।

XS
SM
MD
LG