অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

লিথিয়াম সমৃদ্ধ পাথর পাচারের কথিত অভিযোগে দুই চীনা নাগরিককে গ্রেফতার করেছে তালিবান


আফগানিস্তানের নুরিস্তান প্রদেশের রাজধানী পারুনে একটি চেকপোস্টের কাছে নজর রাখছেন একজন আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য। (ফাইল ছবি)

আফগানিস্তান থেকে আনুমানিক এক হাজার মেট্রিক টন লিথিয়াম সমৃদ্ধ শিলা পাচারের চেষ্টা করার অভিযোগে, দুই চীনা নাগরিকসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির ক্ষমতাসীন তালিবান কর্তৃপক্ষ।

পূর্ব আফগানিস্তানের সীমান্ত শহর জালালাবাদে পাচারকারীদের গ্রেফতার ও পাথরগুলো জব্দ করা হয়।

আফগান টেলিভিশন চ্যানেলে রবিবার প্রচারিত এক সাক্ষাৎকারে তালিবান গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলেছেন, চীনা ওই নাগরিক এবং তাদের আফগান সহযোগীরা পাকিস্তান হয়ে চীনে অবৈধভাবে ওইসব "মূল্যবান পাথর" পরিবহনের পরিকল্পনা করছিল।

আফগানিস্তানের খনি ও পেট্রোলিয়াম মন্ত্রকের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা মোহাম্মদ রসুল আকাব অনুমান করেছেন, শিলাগুলিতে "৩০% পর্যন্ত লিথিয়াম রয়েছে।" তিনি আরও বলেন, পাকিস্তানের সীমান্তবর্তী আফগানিস্তানের দুটি প্রদেশ নুরিস্তান এবং কুনার থেকে শিলাগুলি "অতি গোপনে" আহরণ করা হয়েছিল।

২০২১ সালের আগস্টে আফগানিস্তান থেকে সমস্ত আমেরিকান এবং নেটো সৈন্য প্রত্যাহারের পর তালিবান দেশটিতে ক্ষমতা পুনরুদ্ধার করলে, লিথিয়াম উত্তোলন এবং বিক্রয় সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করে ইসলামপন্থী শাসকরা।

আফগানিস্তানে লিথিয়ামের বিশাল মজুদ রয়েছে। ধারণা করা হয়, দেশটিতে প্রায় ১ ট্রিলিয়ন ডলার মূল্যের বিরল এই খনিজ পদার্থটি রয়েছে, কিন্তু কয়েক দশকের যুদ্ধ দেশটির লিথিয়াম খনির বিকাশকে বাধাগ্রস্ত করেছে।

লিথিয়াম রিচার্জেবল ব্যাটারির একটি মূল উপাদান এবং এটি জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা করার জন্য পরিবেশ বান্ধব প্রযুক্তিতে ব্যবহৃত হয়।

তালিবান নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পরপরই যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমা দেশগুলো আফগানিস্তানের ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

ইসলামপন্থী গোষ্ঠীটি সাম্প্রতিক মাসগুলিতে পাকিস্তানে কয়লা রপ্তানি বাড়িয়েছে। বর্ধিত এই কয়লা রপ্তানি, আফগানিস্তানের বাজেটের প্রয়োজনে অর্থ জোগাতে এবং সরকারী খাতের কর্মচারীদের বেতন প্রদানের জন্য তাদের অত্যধিক প্রয়োজনীয় রাজস্ব সংগ্রহ করতে সহায়তা করেছে।

XS
SM
MD
LG