অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

উত্তর কোরিয়ার রাজধানীতে ‘শ্বাসযন্ত্রের অসুস্থতা’ ছড়িয়ে পড়ায় লকডাউনের আদেশ


উত্তর কোরিয়ার জনসাধারণ চান্দ্র নববর্ষ উপলক্ষে রবিবার উত্তর কোরিয়ার পিয়ংইয়ং-এর মানসু পাহাড়ে প্রয়াত নেতা কিম ইল সুং এবং কিম জং ইলের ভাষ্কর্য দেখতে যায় এবং সেখানে শ্রদ্ধা জানায়। ২২ জানুয়ারি, ২০২৩। ফাইল ছবি।

রাশিয়ার কূটনীতিক এবং সিউল-ভিত্তিক একটি সংবাদ সংস্থার মতে, শ্বাসকষ্টজনিত অসুস্থতা বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে উত্তর কোরিয়া কর্তৃপক্ষ রাজধানী পিয়ংইয়ং-এ ৫ দিনের লকডাউনের নির্দেশ দিয়েছে।

উত্তর কোরিয়ার একটি প্রকাশনা সূত্র এনকে নিউজ প্রথম লকডাউনের সংবাদ দিয়েছে। তারা বলে, পিয়ংইয়ং-এর বাসিন্দাদেরকে তাদের বাড়িতে থাকতে হবে এবং বুধবার থেকে রবিবার পর্যন্ত বাধ্যতামূলকভাবে প্রত্যেকের শরীরের তাপমাত্রা মাপতে হবে।

উত্তর কোরিয়ার স্টেটস ইমার্জেন্সি এন্টি-এপিডেমিক কমান্ড অর্ডারের উদ্ধৃতি দিয়ে রুশ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, লকডাউনটি রবিবার পর্যন্ত চলবে তবে পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে এর মেয়াদ আরও ৩ দিন বাড়ানো হতে পারে।

মহামারির প্রথম দুই বছরে উত্তর কোরিয়া কোনোপ্রকার সংক্রমণের ঘটনা অস্বীকার করেছে। অবশেষে মে মাসে তারা সংক্রমণ রিপোর্ট করলেও ৩ মাস পরেই তারা ভাইরাসের বিরুদ্ধে বিজয় ঘোষণা করে।

বেশিরভাগ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ এই দাবি নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলেছেন যে এমনকি উত্তর কোরিয়ার সরকারও সম্ভবত ভাইরাসের বিস্তার সম্পর্কে অবগত নয়, কারণ তাদের টেস্টিং সরবরাহের অভাব রয়েছে।

সেপ্টেম্বরে উত্তর কোরিয়া ইঙ্গিত দিয়েছিল যে, শীঘ্রই তারা কোভিড-১৯ টিকা দেয়া শুরু করবে তবে এর বিশদ কোনো বিবরণ তারা দেয়নি।

কিছু বিশেষজ্ঞ বলেছেন, উত্তর কোরিয়া মহামারীটির সবচেয়ে খারাপ রূপ থেকে রক্ষা পেয়েছে, কারণ ২০২০ সালের প্রথম দিকে তাদের প্রতিবেশী দেশ চীনে করোনা ভাইরাস আবির্ভূত হওয়ার পরে দেশটি তাদের সীমানা বন্ধ করার জন্য দ্রুত কাজ করেছিল।

উত্তর কোরিয়ার স্বৈরাচারী সরকারের সামাজিক নিয়ন্ত্রণও প্রায় অন্য যেকোনো দেশের তুলনায় অনেক বেশি।

XS
SM
MD
LG