অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

তাইওয়ান আক্রমণ করার সক্ষমতা নিয়ে চীনের সন্দেহ আছেঃ সিআইএ প্রধান


তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক কর্তৃক ২০২০ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি তোলা এবং প্রকাশ করা এই হ্যান্ডআউট ছবিতে তাইওয়ানের আকাশসীমায় তাইওয়ানের একটি এফ-সিক্সটিন ফাইটার জেট একটি চীনা এইচ-সিক্স বোমারু বিমানের পাশে উড়ছে। ফাইল ছবি।
তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক কর্তৃক ২০২০ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি তোলা এবং প্রকাশ করা এই হ্যান্ডআউট ছবিতে তাইওয়ানের আকাশসীমায় তাইওয়ানের একটি এফ-সিক্সটিন ফাইটার জেট একটি চীনা এইচ-সিক্স বোমারু বিমানের পাশে উড়ছে। ফাইল ছবি।

যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা তথ্যে দেখা গেছে, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং তার দেশের সামরিক বাহিনীকে তাইওয়ানে আক্রমণ করার জন্য “২০২৭ সালের মধ্যে প্রস্তুত” হওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। তবে তিনি বর্তমানে ইউক্রেনের সাথে রাশিয়ার যুদ্ধের অভিজ্ঞতার কারণে এই আক্রমণ করার সক্ষমতা নিয়ে সন্দেহ পোষণ করছেন। সিআইএ পরিচালক উইলিয়াম বার্নস একথা জানান।

রবিবার প্রচারিত একটি টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে বার্নস জোর দিয়ে বলেন, সামরিক সংঘাত অনিবার্য না হলেও চূড়ান্তভাবে তাইওয়ানকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য শি-র ইচ্ছাকে যুক্তরাষ্ট্রের “খুবই গুরুত্ব সহকারে” নিতে হবে।

তাইওয়ান এবং চীন ১৯৪৯ সালে একটি গৃহযুদ্ধের পরে বিভক্ত হয়েছিল। ওই গৃহযুদ্ধের পরে মূল ভূখণ্ডের নিয়ন্ত্রণ কমিউনিস্ট পার্টির হাতে চলে যায়। স্ব-শাসিত দ্বীপটি একটি সার্বভৌম রাষ্ট্রের মতো কাজ করে। এটি এখনো জাতিসংঘ বা বড় কোনো রাষ্ট্র দ্বারা স্বীকৃত নয়। ১৯৭৯ সালে প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার আনুষ্ঠানিকভাবে বেইজিং সরকারকে স্বীকৃতি দেন এবং তাইওয়ানের সাথে নেশন-টু-নেশন সম্পর্ক ছিন্ন করেন। এর প্রতিক্রিয়ায় কংগ্রেস তাইওয়ান রিলেশন্স অ্যাক্ট পাস করে যা অব্যাহত সম্পর্কের জন্য একটি মানদণ্ড তৈরি করে।

তাইওয়ান বেইজিং-এর ক্রমবর্ধমান শক্তি প্রদর্শনের মুখে তাদের গণতন্ত্রের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি সমর্থনের অসংখ্য উদাহরণ প্রত্যক্ষ করেছে। বেইজিং তাইওয়ানকে নিজেদের অঞ্চলের অংশ হিসেবে দাবি করে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, চীন আক্রমণ করার চেষ্টা করলে আমেরিকান বাহিনী তাইওয়ানকে রক্ষা করবে। হোয়াইট হাউস বলেছে, ওয়াশিংটন তাইওয়ানের অবস্থা শান্তিপূর্ণভাবে সমাধান করতে চায় সেটি স্পষ্ট করার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের নীতির পরিবর্তন হয়নি। চীনা হামলার উত্তরে যুক্তরাষ্ট্রের বাহিনী পাঠানো হতে পারে কি না তা নিয়ে হোয়াইট হাউস নীরব আছে।

XS
SM
MD
LG