অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

চীন বুধবার থেকে বিদেশী দর্শনার্থীদের জন্য আবার সীমান্ত খুলে দিচ্ছে


২০২২ সালের ২৪ আগস্ট বেইজিং ক্যাপিটাল ইন্টারন্যাশনাল বিমানবন্দরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চেক ইন কাউন্টারে একজন বিমানকর্মী যাত্রীদেরকে তাদের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত তথ্য দিতে বলছেন। ফাইল ছবি।
২০২২ সালের ২৪ আগস্ট বেইজিং ক্যাপিটাল ইন্টারন্যাশনাল বিমানবন্দরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চেক ইন কাউন্টারে একজন বিমানকর্মী যাত্রীদেরকে তাদের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত তথ্য দিতে বলছেন। ফাইল ছবি।

চীন বলেছে, তারা কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবিলায় আরোপিত তিন বছরের নিষেধাজ্ঞার অবসান ঘটিয়ে বুধবার পুনরায় সব ধরনের ভিসা প্রদান করা শুরু করবে এবং বিদেশী পর্যটকদের জন্য তাদের সীমানা পুনরায় খুলে দেবে।

মঙ্গলবার সরকার বলেছে, হাইনান দ্বীপের মতো গন্তব্যগুলোর জন্য এবং কেন্দ্রীয় বন্দর শহর সাংহাইতে প্রবেশকারী ক্রুজ জাহাজগুলো, যেগুলোর জন্য মহামারির আগে কোনো ভিসার প্রয়োজনীয়তা ছিল না সেগুলোর জন্য ভিসামুক্ত প্রবেশের সুবিধা আবার শুরু হবে।

২০২০ সালের ২৮ মার্চ যখন বেইজিং বেশিরভাগ বিদেশী দর্শনার্থীদের জন্য তাদের সীমানা বন্ধ করে দিয়েছিল, তার আগে যে বিদেশীদের ভিসা জারি করা হয়েছিল, মেয়াদ শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদেরকে দেশে প্রবেশ করার অনুমতি দেয়া হবে।

হংকং এবং ম্যাকাও ছিটমহল থেকে দক্ষিণ প্রদেশ গুয়াংডং-এ প্রবেশের জন্য বিদেশিদের ভিসা মুক্ত প্রবেশ আবার শুরু হবে।

বেইজিং গত ডিসেম্বরে মহামারির শুরুতে প্রথম আরোপ করা “জিরো-কোভিড” কৌশলটি হঠাৎ করে শেষ করে। ঐ নীতিতে কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবের কারণে কয়েকটি শহরে দ্রুত এবং গুরুতর লকডাউন, কোয়ারেন্টাইন এবং মাস টেস্টিং অন্তর্ভুক্ত ছিল। এটি চীনের অনেক শহর জুড়ে অস্বাভাবিক এবং তীব্র জনবিক্ষোভ এবং কারখানা বন্ধের কারণে অর্থনৈতিক মন্দার সূত্রপাত ঘটায়।

এই প্রতিবেদনের কিছু তথ্য এপি এবং রয়টার্স থেকে নেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG