অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

তারেক-জোবাইদার বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি ৯ এপ্রিল


তারেক রহমান ও তাঁর স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমান
তারেক রহমান ও তাঁর স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমান

বিরোধী রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তাঁর স্ত্রী জোবাইদা রহমানের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও তাঁদের হলফনামায় তথ্য গোপনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলার শুনানির জন্য আগামী ৯ এপ্রিল দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বুধবার (২৯ মার্চ) ঢাকা মহানগরের জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ মো. আসাদুজ্জামান নতুন এ তারিখ ধার্য করেন।

এর আগে ২০২২ সালের ১ নভেম্বর দুর্নীতি মামলায় তারেক রহমান ও তাঁর স্ত্রী জোবাইদার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন ঢাকার আদালত।

২৬ জুন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ বিচারিক আদালতকে মামলাটি যত দ্রুত সম্ভব নিষ্পত্তির নির্দেশ দেন। হাইকোর্ট দুর্নীতির মামলাকে চ্যালেঞ্জ করে তারেক–জোবাইদার করা রিট পিটিশনও খারিজ করেছেন। তারা দুজনই পলাতক থাকায় এগুলো গ্রহণযোগ্য নয় বলে আদালত রিট আবেদন খারিজ করে দেন।

তাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার বিচার কার্যক্রমের ওপর দেওয়া স্থগিতাদেশও প্রত্যাহার করেছেন আদালত।

২০০৭ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর তারেক রহমান, জোবাইদা রহমান ও তার মা ইকবাল মান্দ বানুর বিরুদ্ধে ৪ কোটি ৮১ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের অভিযোগে কাফরুল থানায় অভিযোগ দায়ের করে দুদক।

একই বছর জোবাইদা রহমানের আবেদনের শুনানি নিয়ে মামলার বিচার কার্যক্রম স্থগিত করে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

হাইকোর্ট ২০১৭ সালে এই নিয়ম প্রত্যাখ্যান করে এবং তাঁকে ৮ সপ্তাহের মধ্যে আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলেন।

XS
SM
MD
LG