অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পর্ন তারকাকে মুখ বন্ধ রাখতে দেওয়া অর্থ সংক্রান্ত ৩৪টি অভিযোগে ট্রাম্প নিজেকে নির্দোষ দাবি করলেন


নিউইয়র্কের ম্যানহাটানের একটি রাষ্ট্রীয় আদালতে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। সঙ্গে তার আইনজীবীরা। ৪ এপ্রিল, ২০২৩।
নিউইয়র্কের ম্যানহাটানের একটি রাষ্ট্রীয় আদালতে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। সঙ্গে তার আইনজীবীরা। ৪ এপ্রিল, ২০২৩।

প্রায় এক দশক আগে, ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়লাভের ঠিক আগে পর্ণ অভিনেত্রী স্টর্মি ড্যানিয়েলসের মুখ বন্ধ রাখার জন্য ১ লাখ ৩০ হাজার ডলার অর্থ দেয়ার সাথে যুক্ত ৩৪টি অভিযোগে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। এর আগে, মঙ্গলবার ম্যানহাটানের একটি রাষ্ট্রীয় আদালতে পৌঁছার পর, ট্রাম্পকে আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক কিংবা বর্তমান কোনও প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে এটিই প্রথম দায়ের করা ফৌজদারি অভিযোগ।

ট্রাম্প দীর্ঘদিন ধরে পর্ণ অভিনেত্রীর সাথে তার এক রাতের অভিসারের বিষয়টি অস্বীকার করে আসছেন। কিন্তু তিনি ড্যানিয়েলসকে দেয়ার জন্য তার সাবেক আইনজীবী এবং রাজনৈতিক উপদেষ্টা, মাইকেল কোহেনকে ওই অর্থ প্রদান করেছিলেন এবং কোহেন সেই পরিশোধকৃত অর্থ আইনি খরচ হিসাবে ট্রাম্প অর্গানাইজেশনের ব্যবসায়িক খাতায় নথিভুক্তও করেছিলেন। ট্রাম্প দাবী করেছেন, ওই অর্থ প্রদানের ঘটনাটি সাত বছর আগে তার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সংশ্লিষ্ট প্রচারণার সাথে সম্পর্কিত ছিল।

৭৬ বছর বয়সী ট্রাম্প একসময় তার আবাসন ব্যবসার সাম্রাজ্যের তত্ত্বাবধান করতেন এবং প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগে কয়েক দশক ধরে শহরের চকচকে, জাঁকজমক পূর্ণ অভিজাত একটা সমাজে বিচরণ করতেন। কিন্তু এই প্রথমবারের মতো, তিনি তার নিজের শহরে একজন বিবাদী হিসাবে আদালতে উপস্থিত হলেন। বিভিন্ন প্রাথমিক জাতীয় জরিপগুলিতে দেখা যায়, হোয়াইট হাউজ পুনরুদ্ধার করার লড়াইয়ে, আগামী ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের পক্ষে মনোনয়নের দৌড়ে তিনিই নেতৃত্ব দিচ্ছেন৷

আদালতে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে ধরার কিছুক্ষণ আগে, ট্রাম্পকে আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রেপ্তার দেখানো হয় এবং যে কোনও অপরাধী আসামীর মতো তার আঙুলের ছাপ নেয়া হয়।

আদালত চত্বর থেকে ছয় কিলোমিটার দূরে ট্রাম্প টাওয়ারে কয়েক ডজন পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল, যেখানে ট্রাম্প তার বাসভবনে রাত কাটিয়েছেন এবং তার আইনজীবীদের সাথে শেষ মুহূর্তের কৌশল নিয়ে আলোচনা করেছেন।

রবিবার, ট্রাম্পের আইনজীবী জো টাকোপিনা সিএনএনকে বলেছিলেন, ড্যানিয়েলসকে অর্থ প্রদান সম্পূর্ণই একটি "ব্যক্তিগত ব্যয়, প্রচারাভিযানের সাথে এর কোনও সম্পর্ক নেই।" ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল সর্ব প্রথম ২০১৮ সালের শুরুতে অর্থপ্রদান বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল।

হোয়াইট হাউজ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা করতে অস্বীকার করেছে। তবে বলেছে, ট্রাম্প এবং ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি অ্যালভিন ব্র্যাগের পক্ষে বা বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হলে, যা কিছু হতে পারে তার জন্য সরকার "সর্বদা প্রস্তুত" আছে। আদালতের শুনানির আগে, আদালত চত্বর থেকে রাস্তার ওপারে একটি পার্কে কিছু ট্রাম্প-পন্থী এবং ট্রাম্প বিরোধিতাকারী বিক্ষোভকারী পরস্পরের সাথে বিবাদে লিপ্ত হয়।

নিউইয়র্ক সিটির মেয়র এরিক অ্যাডামস সতর্ক করে দিয়ে বলেন, "আমাদের বার্তা খুবই স্পষ্ট এবং সহজ: নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করুন। নিউ ইয়র্ক সিটি আমাদের বাড়ি, আপনাদের ভুল ক্রোধ প্রকাশের জন্য কোনও খেলার মাঠ নয়।"

অন্যদিকে, সোমবার মিনেসোটার একটি কারখানায় সফররত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শহরে অশান্তি হবে বলে তিনি মনে করেন কি না, জানতে চাইলে তিনি উত্তর দেন, "না। নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগের উপর আমার আস্থা আছে।"

আদালতের কার্যক্রম শেষ হবার পর, ট্রাম্প ফ্লোরিডায় ফিরে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছেন, যেখানে তিনি মঙ্গলবার রাতে তার মার-এ-লাগো বাসভবন থেকে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলবেন, এবং তার সমর্থকদের সাথে মিলিত হবেন।

সাবেক প্রেসিডেন্ট অন্যান্য ফৌজদারি তদন্তেরও মুখোমুখি হচ্ছেন, যার ফলে তার বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ আনা হতে পারে, কিংবা সম্ভবত তাকে অন্যায় করার অভিযোগ থেকে অব্যাহতিও দেওয়া হতে পারে। এর মধ্যে বাইডেনের কাছে তার ২০২০ সালের পুনঃনির্বাচনে পরাজয়ের ফলাফল পাল্টানোর প্রচেষ্টার কেন্দ্রীয় তদন্ত অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে ২০২১ সালের ৬ জানুয়ারী, বাইডেনের বিজয়কে প্রত্যয়িত করা থেকে কংগ্রেসকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করতে, সমর্থকদের উত্সাহিত করার ক্ষেত্রে ট্রাম্পের ভূমিকা এবং মার-এ-লাগোতে তার বাসভবনে রাষ্ট্রীয় গোপন কিছু নথিপত্র রাখা। হোয়াইট হাউজ ত্যাগ করার সময় জাতীয় আর্কাইভের কাছে ওই নথিপত্রগুলি তার হস্তান্তর করার কথা ছিল।

XS
SM
MD
LG