অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ব্রিটেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক: বাখমুত যুদ্ধে “গতি” পেয়েছে রাশিয়া


ইউক্রেনের ওপর রাশিয়ার আক্রমণ অব্যাহত থাকায় ইউক্রেনের সেনারা ডনেটস্ক অঞ্চলের বাখমুত শহরের কাছে মর্টার নিক্ষেপের প্রস্তুতি নিচ্ছে; ৬ এপ্রিল ২০২৩।
ইউক্রেনের ওপর রাশিয়ার আক্রমণ অব্যাহত থাকায় ইউক্রেনের সেনারা ডনেটস্ক অঞ্চলের বাখমুত শহরের কাছে মর্টার নিক্ষেপের প্রস্তুতি নিচ্ছে; ৬ এপ্রিল ২০২৩।

ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রক শুক্রবার তাদের ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণ সম্পর্কিত দৈনিক হালনাগাদ গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলেছে , রাশিয়া সম্প্রতি বাখমুত দখলের যুদ্ধে কিছুটা “গতি” ফিরে পেয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, রুশ বাহিনী খুব সম্ভবত বাখমুত শহরের কেন্দ্রে অগ্রসর হয়েছে এবং বাখমুতকা নদীর পশ্চিম তীর দখল করেছে।

এদিকে, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো, ইউক্রেনে রাশিয়ার যুদ্ধের অবসান ঘটাতে, রাশিয়ার সাথে চীনের সম্পর্ককে ব্যবহার করতে, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার বেইজিং-এ সাক্ষাতের সময় ম্যাঁক্রো শি-কে বলেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন আন্তর্জাতিক স্থিতিশীলতাকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে।

ইউক্রেনের কর্মকর্তারা বলেছেন, যদি রাশিয়া তার সকল সেনা প্রত্যাহার করে নেয়, তবেই কেবল তারা শান্তি আলোচনায় অংশ নেবেন। অন্যদিকে, রাশিয়া যে অঞ্চলগুলো দখল করে নিয়েছে, ইউক্রেন যেন সেই অঞ্চলগুলোকে স্বীকৃতি দেয় সে বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে। জানা মতে, গত এপ্রিল থেকে কোনো শান্তি আলোচনা হয়নি।

জেলেন্সকি বুধবার প্রতিবেশী দেশ পোল্যান্ড সফর করেছেন। সফরকালে তিনি সেখানকার নেতাদের ইউক্রেনে যুদ্ধের সর্বসাম্প্রতিক অবস্থা সম্পর্কেূ জানান এবং রাশিয়া ইউক্রেনে পূর্ণ মাত্রায় আগ্রাসন শুরু করার পর, দেশটি থেকে পোল্যান্ডে পালিয়ে যাওয়া শরণার্থীদের সাথে বৈঠক করেন।

জেলেন্সকি বলেন, পূর্বাঞ্চলীয় শহর বাখমুতে ইউক্রেনীয় বাহিনীর জন্য পরিস্থিতি এখনো কঠিন। কিয়েভের সেনারা রুশ বাহিনী দ্বারা বেষ্টির হওয়ার ঝুঁকিতে পড়লে “পরিস্থিতি অনুযায়ী সিদ্ধান্ত” নিতে হবে।

পোল্যান্ড ইউক্রেনের প্রধান মিত্র। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা বলেছে, ১৫ লাখ ইউক্রেনীয় শরণার্থী পোল্যান্ডে অস্থায়ী সুরক্ষা মর্যাদা পাওয়ার জন্য নিবন্ধিত হয়েছে।

এই প্রতিবেদনের কিছু তথ্য এপি, এএফপি এবং রয়টার্স থেকে নেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG