অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কাতার ও বাহরাইন কূটনৈতিক সম্পর্ক পুন:প্রতিষ্ঠায় সম্মত


বাহরাইনের রাজধানী মানামাতে ৩৭তম উপসাগরীয় সহযোগিতা কাউন্সিলের শীর্ষ বৈঠকে বাহরাইনের বাদশাহ হামাদ বিন ইসা আল খলিফা ( ডানে মাঝখানে) কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল সানি (বামে মাঝখানে) ‘কে স্বাগত জানাচ্ছেন । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬।
বাহরাইনের রাজধানী মানামাতে ৩৭তম উপসাগরীয় সহযোগিতা কাউন্সিলের শীর্ষ বৈঠকে বাহরাইনের বাদশাহ হামাদ বিন ইসা আল খলিফা ( ডানে মাঝখানে) কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল সানি (বামে মাঝখানে) ‘কে স্বাগত জানাচ্ছেন । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬।

কাতার ও বাহরাইন বুধবার রাতে ঘোষণা করেছে যে তারা দীর্ঘদিনের কূটনৈতিক দ্বন্দ্বের অবসান ঘটাতে এবং সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠায় সম্মত হয়েছে।

২০১৭ সালে বাহরাইন সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মিশরের সঙ্গে মিলে কাতারের ওপর কূটনৈতিক অবরোধ আরোপ করেছিল। তবে দেশগুলির মধ্যকার প্রতিদ্বন্দ্বিতা আরও দূর পর্যন্ত গড়ায় এবং বাহরাইন সর্বশেষ রাষ্ট্র যারা সম্পর্ক পুনঃ প্রতিষ্ঠা করতে যাচ্ছে।

কাতারের পররাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়েছে, আরব উপসাগরীয় সহযোগিতা পরিষদের সদর দপ্তরে আলোচনার মাধ্যমে সমঝোতার বিষয়ে তারা ঐকমত্যে পৌঁছেছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রকের এক বিবৃতিতে বলা হয়, “জাতিসংঘ সনদের নীতিমালা অনুযায়ী দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনর্স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিবেশী দেশগুলো ।”

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, “দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়ন এবং উপসাগরীয় ঐক্য ও সংহতি বাড়ানোর পারস্পরিক আকাঙ্ক্ষা থেকেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে উভয় পক্ষ নিশ্চিত করেছে।

বাহরাইনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা জানিয়েছে যে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রকও একই ধরনের বিবৃতি প্রকাশ করেছে।

ঐ অঞ্চলের চরমপন্থী সংগঠনগুলিকে সমর্থন করার এবং ইরানের খুব ঘনিষ্ঠ হওয়ার অভিযোগ এনে কাতারের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন এবং মিশর অবরোধ আরোপ করে।

চারটি দেশ কাতারের বিমান ও জাহাজ তাদের আকাশসীমা ও জলসীমায় ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেল।

২০২১ সালের জানুয়ারিতে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং কাতার এখনও তাদের দূতাবাস পুনরায় চালু না করলেও অন্য তিনটি দেশ ইতওমধ্যে সম্পর্ক পুনরস্থাপন করেছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাত ও কাতারের কর্মকর্তারা গত সপ্তাহে তাদের সর্ব সাম্প্রতিক সমঝোতা বৈঠক করেছেন। কাতারের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের এক মুখপাত্র বৈঠক “ইতিবাচক” বর্ণনা করেছেন।

XS
SM
MD
LG