অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কবিপক্ষে চার দশক আগের অমর্ত্য সেনের শান্তিনিকেতনে সাইকেলে চালানোর ছবি পোস্ট করল নোবেল কমিটি


নোবেল পুরস্কার বিজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন।
নোবেল পুরস্কার বিজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন।

চল্লিশ বছর আগের ছবি। শান্তিনিকেতন-শ্রীনিকেতনের মোরামের রাস্তায় সাইকেল চালাচ্ছেন অমর্ত্য সেন। হঠাৎই সেই ছবি ট্যুইট করেছে নোবেল কমিটি । প্রতি বছরই নোবেল জয়ী কবির জন্মদিনে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ট্যুইট করে কমিটি। এবারও বাদ যায়নি তা। পরদিনই তারা ট্যুইট করে অমর্ত্যের ছবিটি।

নোবেল জয়ীর ঘনিষ্ঠমহলের বক্তব্য, ছবিটির মধ্যে শান্তিনিকেতনকে জড়িয়ে অর্মত্যের সম্পর্ক এবং আবেগ দুই-ই আছে। এই সাইকেলে চড়েই তিনি সে সময় বীরভূমের গ্রামে গ্রামে ঘুরে শিশুদের মধ্যে লিঙ্গ বৈষম্য সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করেছিলেন। যে তথ্য ও পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে আটের দশকের গোড়ায় প্রকাশিত হয়েছিল তাঁর বই 'ইন্ডিয়ান উইমেন: ওয়েল বিয়িং অ্যান্ড সারভাইভাল'। সেই বইয়ের বিষয়কে ভিত্তি করে প্রকাশিত অসংখ্য গবেষণাপত্র।

অমর্ত্যের ওই সাইকেলটি তাঁর আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ সামগ্রীর সঙ্গেই সুইডেনে নোবেল কমিটির মিউজিয়ামে রাখা আছে। কিন্তু কমিটি এখন হঠাৎ সাইকেল চালক অমর্ত্যের ছবিটি কেন ছাপল তা নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে। অমর্ত্যের অনুরাগীরা খুশি। কারণ এমন একটা সময় কমিটি ছবিটি আন্তর্জাতিক মহলের সামনে তুলে ধরছে যখন নোবেল জয়ী এই অর্থনীতিবিদকে খানিক অস্বস্তিকর পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে হচ্ছে। এক খণ্ড জমি নিয়ে বিবাদে শান্তিনিকেতন থেকে তাঁকে একপ্রকার উচ্ছেদেরই আয়োজন করেছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। কলকাতা হাইকোর্ট বিশ্বভারতীয় সিদ্ধান্তের উপর স্থগিতাদেশ জারি করায় আপাতত তারা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করতে পারেনি। অমর্ত্যের পাশে দাঁড়িয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ খুলেছেন দেশি-বিদেশি বহু বিশিষ্টজন।

কেন্দ্রীয় সরকার ও বিজেপি নেতারা এ বিষয়ে এখনও কোন মন্তব্য করেননি।

XS
SM
MD
LG