অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী চীনের সাথে তার দেশের সম্পর্কের প্রশংসা করেছেন


রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মিখাইল মিশুস্টিন (বামে), চীনের বেইজিং-এ সিংহুয়া বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শন করছেন। বুধবার। ২৪ মে, ২০২৩। (সরকারি পুলের ছবি )
রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মিখাইল মিশুস্টিন (বামে), চীনের বেইজিং-এ সিংহুয়া বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শন করছেন। বুধবার। ২৪ মে, ২০২৩। (সরকারি পুলের ছবি )

চীন সফররত রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মিখাইল মিশুস্টিন চীনের সাথে তার দেশের সম্পর্কের প্রশংসা করে বলেছেন, তাদের মধ্যকার সম্পর্ক “অভূতপূর্ব উচ্চ পর্যায়ে রয়েছে।”

বুধবার চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কিয়েং-এর সাথে বেইজিং-এ এক বৈঠকে মিশুস্টিন এ মন্তব্য করেন। মিশুস্টিন প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর সাথেও সাক্ষাৎ করেছেন। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শি মস্কোর “মূল স্বার্থে” বেইজিং-এর সমর্থনের প্রস্তাব দিয়েছেন।

মিশুস্টিন বলেন, ঐ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক “পরস্পরের স্বার্থের প্রতি পারস্পরিক শ্রদ্ধা, যৌথভাবে চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করার আকাঙ্ক্ষা তুলে ধরে, যা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বর্ধিত অশান্তি এবং পশ্চিমা জোটের চাপের সাথে যুক্ত। ”

মিশুস্টিন এবং লি বাণিজ্য পরিষেবা, চীনে রুশ কৃষি পণ্য রপ্তানি এবং খেলাধুলার বিষয়ে সহযোগিতার সাথে জড়িত বেশ কয়েকটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে মস্কোর আগ্রাসনের পর থেকে বেইজিং সফর করা সর্বোচ্চ র‍্যাংকের রুশ কর্মকর্তা হলেন মিশুস্টিন। আক্রমণের প্রতিক্রিয়ায় পশ্চিমা দেশগুলোর নিষেধাজ্ঞার কারণে চীন তেল ও গ্যাস রপ্তানির ক্ষেত্রে রাশিয়ার সবচেয়ে বড় গ্রাহক হয়ে উঠেছে। রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম সম্প্রতি জানিয়েছে, এই বছর চীনে রাশিয়ার রপ্তানি ৪০ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে।

ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের প্রকাশ্য সমালোচনা থেকে বিরত থাকে চীন। বেইজিং এই সংঘাতে নিরপেক্ষতা বজায় রাখে।

যুদ্ধে রাশিয়াকে সামরিক সহায়তা প্রদানের বিরুদ্ধে চীনকে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

XS
SM
MD
LG