অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ওয়াশিংটনে যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের শীর্ষ বাণিজ্য কর্মকর্তাদের বৈঠক


চীনের বেইজিং-এ চীনের বাণিজ্যমন্ত্রী ওয়াং ওয়েনতাও। ২ মার্চ, ২০২৩। ফাইল ছবি।
চীনের বেইজিং-এ চীনের বাণিজ্যমন্ত্রী ওয়াং ওয়েনতাও। ২ মার্চ, ২০২৩। ফাইল ছবি।

চীন এবং যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ ব্যবসা ও বাণিজ্য বিষয়ক কর্মকর্তারা বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটনে মিলিত হয়েছেন। এটি বিশ্বের বৃহত্তম দুটি অর্থনীতির নেতাদের মধ্যে বিরল একটি সরাসরি কথোপকথন।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিভাগ এক বিবৃতিতে বলেছে, চীনের বাণিজ্যমন্ত্রী ওয়াং ওয়েনতাও এবং যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যমন্ত্রী জিনা রাইমন্ড “যুক্তরাষ্ট্র-চীন বাণিজ্যিক সম্পর্ক সম্পর্কিত বিষয়গুলোর ওপর অকপট এবং সারগর্ভ আলোচনা করেছেন।”

বিভাগ বলেছে, বৃহস্পতিবারের বৈঠক যুক্তরাষ্ট্র-চীন সম্পর্ক “যোগাযোগের উন্মুক্ত লাইন বজায় রাখার এবং দায়িত্বের সাথে পরিচালনা করার জন্য চলমান প্রচেষ্টার অংশ ছিল।”

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গত নভেম্বরে বালিতে চীনের নেতা শি জিনপিং-এর সাথে সাক্ষাৎ করেছিলেন এবং তার পর ওয়াশিংটনে বৃহস্পতিবারের বাণিজ্য আলোচনাটি ছিল বাইডেন প্রশাসনের সময়কালে যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানীতে আমেরিকান ও চীনা কর্মকর্তাদের প্রথম মন্ত্রীসভা পর্যায়ের বৈঠক।

ওয়াং যুক্তরাষ্ট্রে ২০২৩ এপিইসি বা এপেক মন্ত্রীদের বাণিজ্য সভার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানের ডেট্রয়েটে বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার অবস্থান করবেন।

চীনের বাণিজ্য মন্ত্রকের মুখপাত্র শু জুয়েটিং বেইজিং-এ নিয়মিত ব্রিফিং-এ বলেছেন, ওয়াশিংটনের আলোচনায় চীন-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্ক এবং অভিন্ন উদ্বেগের বিষয়ে চীন তার মতামত প্রকাশ করেছে।

তবে চীন রবিবার যুক্তরাষ্ট্রের চিপ প্রস্তুতকারক মাইক্রোনকে জাতীয় নিরাপত্তা ঝুঁকি হিসেবে ঘোষণা করেছে এবং মূল দেশীয় শিল্পগুলোতে তাদের মেমোরি চিপ বিক্রি করতে ফার্মটিকে নিষিদ্ধ করেছে। এই নিষেধাজ্ঞা চীনে পরিচালিত আমেরিকান পরামর্শদাতাগুলোতে ধারাবাহিক অভিযানের পরে আরোপ করা হয়েছে।

এই প্রতিবেদনের কিছু তথ্য রয়টার্স থেকে নেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG