অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে জাতিসংঘ ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেলের সাক্ষাৎ


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে জাতিসংঘ ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেলের সাক্ষাৎ।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে জাতিসংঘ ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেলের সাক্ষাৎ।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন জাতিসংঘের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল আমিনা জে মোহাম্মদ। রবিবার (২ জুলাই) গণভবনে এই সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। সাক্ষাৎ কালে আলোচনায় আসে এসডিজি, জলবায়ু পরিবর্তন, রোহিঙ্গা, কোভিড-১৯ এর প্রভাব এবং বৈশ্বিক অর্থনীতিতে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধসহ বিভিন্ন বিষয়।

পরে, এবিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম। তিনি জানান যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেনন, তার সরকার বিশ্বে খাদ্য সংকটের মধ্যে, খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বিভিন্ন সময়োপযোগী ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।

শেখ হাসিনা বলেন, তার সরকার সংকট নিরসনে সব পতিত জমি চাষের আওতায় আনার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। এমনকি ছাদে খাদ্য ও সবজি চাষের প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দেন তিনি। জানান, তার সরকার কৃষি গবেষণায় সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “ইতোমধ্যে লবণাক্ত ও বন্যা-সহনশীল ধানের জাত উদ্ভাবন করেছেন বাংলাদেশের গবেষকরা; আর, সেগুলো আরো উন্নত করার জন্য কাজ করছেন তারা।”

রোহিঙ্গা ইস্যু সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেয়া হয়েছে। কিন্তু, তারা আমাদের জন্য একটি বড় বোঝা হয়ে উঠেছে। এটি সামাজিক সমস্যা তৈরি করেছ।”

আমিনা জে মোহাম্মদ বলেন, “কোভিড-১৯ মহামারী এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে ৫২টি দেশ এখন সংকটের দ্বারপ্রান্তে। তাই, আমাদের একসঙ্গে সংকট মোকাবেলা করতে হবে। উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য এটি একটি বড় চ্যালেঞ্জ।”

বিশ্ব শান্তি রক্ষায় বাংলাদেশের শান্তিরক্ষীদের অবদান-এর প্রশংসা করেন জাতিসংঘের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল।

XS
SM
MD
LG