অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিএনপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির ষড়যন্ত্র করছে—সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের


সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। (ফাইল ছবি)
সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। (ফাইল ছবি)

বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘাত তীব্র করার ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে বিএনপি (বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল) ও সমমনা দলগুলো গুজব ছড়াচ্ছে।

বুধবার (৫ জুলাই) দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে এক যৌথসভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি ক্ষমতার পেছনে ছুটছে। আওয়ামী লীগ হেরে গেলেই তাদের কাছে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে। … সাম্প্রতিক স্থানীয় সরকার নির্বাচনে কথিত বিশৃঙ্খলা, জাল ভোট এবং ভোটকেন্দ্র দখলের প্রতিফলন ঘটেনি যা বিরোধীরা প্রচার করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় স্বাধীন নির্বাচন কমিশন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে নির্বাচন ব্যবস্থার আধুনিকায়ন ও গণতন্ত্রীকরণে কারণে এই ইতিবাচক ফলাফল ঘটেছে। সিটি করপোরেশন নির্বাচনের মতো আগামী জাতীয় নির্বাচনও শান্তিপূর্ণ, সুষ্ঠু ও স্বাধীনভাবে অনুষ্ঠিত হবে। সরকার হস্তক্ষেপ করবে না এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশাসন তার রুটিন দায়িত্ব পালন করবে।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, বিরোধী দলগুলো ভোটারদের কাছে যাচ্ছে না, বরং তাদের বিদেশি প্রভুদের কাছে আবেদন করছে। তারা অভিযোগ দায়ের এবং বাংলাদেশের ওপর বিধিনিষেধ আরোপের স্বপ্নে লিপ্ত। … বিদেশিরা আমাদের বন্ধু। কিন্তু এখানে তাদের কোনো কর্তৃত্ব নেই। অন্যদিকে বিএনপি বিদেশি রাষ্ট্রকে প্রভু মানছে।

রিপ্রেজেন্টেশন অব দ্য পিপলস অর্ডারের (আরপিও) সাম্প্রতিক সংশোধনী প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, এটা দরকার ছিল। নির্বাচনে যেকোনো অনিয়ম হলে সম্পূর্ণ নির্বাচন বাতিল না করে শুধুমাত্র নির্দিষ্ট কেন্দ্রের ভোট বাতিল করতে হবে। এই বিধানটি আইনে সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়েছে এবং অন্য গণতান্ত্রিক দেশগুলোতে অনুরূপ অনুশীলন বিদ্যমান। কেন বাংলাদেশকে ভিন্ন পন্থা অবলম্বন করতে হবে?

যৌথসভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ, মাহবুব উল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভেঙ্গে পড়েছে—বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী

এদিকে রবিবার (২ জুলাই) ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে দলটির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেছেন, ক্ষমতাসীন দলের স্বার্থ রক্ষায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবহার করা হচ্ছে বলে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভেঙ্গে পড়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী (মাঝে)। (ফাইল ছবি)
সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী (মাঝে)। (ফাইল ছবি)

রুহুল কবির রিজভী বলেন, “দলীয় কর্মকাণ্ডে ব্যবহার করা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নীরব ভূমিকার মধ্যে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা তৎপর থাকায় পুরো জাতি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে”।

তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, দেশ সন্ত্রাসীদের নিরাপদ আশ্রয়স্থলে পরিণত হওয়ায় শুধু সাধারণ মানুষই নয়, পুলিশ সদস্যদেরও হত্যা করা হচ্ছে। “গতকাল (শনিবার) ছিনতাইয়ের ঘটনায় পুলিশ বাহিনীর এক সদস্য নিহত হয়েছেন। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি এতটাই ভেঙ্গে পড়েছে যে প্রতি পদে পদে মানুষের জীবন হুমকির মুখে পড়েছে”।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ক্রমবর্ধমান সামাজিক অবক্ষয়ের মধ্যে ক্ষমতাসীন দলের মদদপুষ্ট বিকৃত যুবকেরা জনমনে উপদ্রব সৃষ্টি করছে এবং বিভিন্ন অপরাধে লিপ্ত হচ্ছে। “এরা তাদের আক্রমণ থেকে নারীসহ কাউকে রেহাই দিচ্ছে না … আমরা এমন একটি খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি যে বোনদের উত্যক্ত করার বিচার চাইতে গেলে তরুণদের হত্যা করা হচ্ছে। বাবা-মা তাদের মেয়েদের সম্ভ্রম ও মর্যাদা রক্ষা করতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের হাতে প্রাণ হারাচ্ছেন”।

XS
SM
MD
LG