অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মণিপুরে দুই আদিবাসী মহিলার অবমাননার ঘটনার তথ্য প্রমাণসহ মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করল পুলিশ


মণিপুরে দুই আদিবাসী মহিলার অবমাননার ঘটনার তথ্য প্রমাণসহ মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করল পুলিশ।
মণিপুরে দুই আদিবাসী মহিলার অবমাননার ঘটনার তথ্য প্রমাণসহ মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করল পুলিশ।

ভারতের উত্তর-পূর্বের মণিপুরে দুই আদিবাসী মহিলাকে বিবস্ত্র করে প্রকাশ্যে হাঁটানো ও গণধর্ষণের ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই সে রাজ্যে বেড়ে গেছে পুলিশের তৎপরতা। এবার যে ফোন থেকে তিন মহিলাকে বিবস্ত্র করে ঘোরানোর ভিডিও ভাইরাল করা হয়েছিল সেই ফোনটি হেফাজতে নিল পুলিশ।

জানা গেছে, এখনও পর্যন্ত এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত যে ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে মণিপুর পুলিশ তার মধ্যেই এক যুবকের থেকে উদ্ধার করা হয়েছে এই মোবাইল ফোনটি।

রবিবার ২৩ জুলাই রাতে মণিপুর পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে ৫ জনকে ১১ দিনের জেল হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। অনুমান করা হচ্ছে এই ৫ ব্যক্তি একাধিক জায়গায় অশান্তি ছড়ানোর সঙ্গেও যুক্ত।

মণিপুর পুলিশের এক আধিকারিকের কথায়, ‘"এই ফোনগুলি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে এবং সাইবার সেলে পাঠানো হয়েছে।" পুলিশের অনুমান, সম্ভবত, এই ফোনগুলি থেকেই দুই আদিবাসী মহিলাকে বিবস্ত্র করে ঘোরানোর ঘটনা সহ আরও একাধিক ঘটনার বিষয়ে বিশদে জানা যাবে।

প্রসঙ্গত, ধৃত ব্যক্তিদের জেরা করে জানা গেছে গত ৪ মে মণিপুরের ফাইনম গ্রামে যে দুষ্কৃতীরা আক্রমণ করেছিল সম্ভবত তারাই যুক্ত ছিল সংলগ্ন আরও একাধিক গ্রামে আক্রমণের ঘটনায়। তবে, বাজেয়াপ্ত করা মোবাইলগুলি থেকেই সম্ভবত আরও তথ্য জানা যাবে দ্রুত, এমনটাই বক্তব্য মণিপুর পুলিশের।

XS
SM
MD
LG