অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মুন্সীগঞ্জে ট্রলারডুবি: ৮টি মরদেহ উদ্ধার, এখনো নিখোঁজ ৫ জন


বাল্কহেডের সঙ্গে ধাক্কা লাগার পর, ৪৬ জন যাত্রী নিয়ে ডুবে যাওয়া ট্রলার থেকে এ পর্যন্ত ৮ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।
বাল্কহেডের সঙ্গে ধাক্কা লাগার পর, ৪৬ জন যাত্রী নিয়ে ডুবে যাওয়া ট্রলার থেকে এ পর্যন্ত ৮ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

বাংলাদেশের মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলায়, পদ্মার শাখা নদীতে বাল্কহেডের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ট্রলারডুবিতে এখন পর্যন্ত ৮ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে; তল্লাশি অভিযান চলছে নিখোঁজদের সন্ধানে । রবিবার(৬ আগস্ট) বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) উপ-পরিচালক ওবায়দুল করিম খান এ কথা জানান।

তিনি বলেন, “অনুসন্ধান ও উদ্ধারকারী দল ডুবে যাওয়া ট্রলার উদ্ধারের চেষ্টা করছে। কোস্ট গার্ডের পাশাপাশি, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স-এর ডুবুরি দল নিখোঁজদের খোঁজে কাজ করছে।”

শনিবার (৫ আগস্ট) সন্ধ্যায় বাল্কহেডের সঙ্গে ধাক্কা লাগার পর, ৪৬ জন যাত্রী নিয়ে ডুবে যাওয়া ট্রলার থেকে এ পর্যন্ত ৮ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. আবু জাফর রিপন জানান, ২ শিশু ও ৩ নারীসহ ৫ জন এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

পিকনিকের জন্য ব্যবহৃত এই ট্রলার, সিরাজদিখান উপজেলার খেতেরপুর ইউনিয়ন থেকে পদ্মা সেতু এলাকা ঘুরে খেতেরপুরে ফিরে আসছিলো।

জেলা প্রশাসক রিপন জানান, “দুর্ঘটনার কারণ চিহ্নিত করতে জেলা প্রশাসন ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত বাল্কহেড আটক করা হয়েছে।”

XS
SM
MD
LG