অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

তারেক রহমানের লন্ডনের ঠিকানায় নোটিশ পাঠাতে হাইকোর্টের নির্দেশ


বিএনপি-র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। (ফাইল ছবি)
বিএনপি-র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। (ফাইল ছবি)

গণমাধ্যম, ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটারসহ সব মাধ্যমে তারেক রহমানের বক্তব্য প্রচার বন্ধের বিষয়ে জারি করা রুলের নোটিশ, তার লন্ডনের ঠিকানায় পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এছাড়া পত্রিকায় এ বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে বলা হয়েছে। রবিবার (১৩ আগস্ট) বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ নির্দেশ দেন।

গণমাধ্যম, ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটারসহ সব মাধ্যমে তারেক রহমানের বক্তব্য প্রচার বন্ধের বিষয়ে ২০১৫ সালের ৭ জানুয়ারি রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট। সেই রুলের নোটিশ এখনো তারেক রহমানের কাছে পৌঁছায়নি।

এ অবস্থায় গত ৮ আগস্ট সাবেক খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলামসহ আওয়ামী লীগ সমর্থক আইনজীবীরা অনলাইনসহ সব গণমাধ্যমে তারেক রহমানের বক্তব্য প্রচারে নিষেধাজ্ঞার রুল শুনানির জন্য দিন ঠিক করতে হাইকোর্টে আবেদন করেন।

এ সময় হাইকোর্ট জানতে চান, তারেক রহমানকে নোটিশ দেয়া হয়নি, তাহলে কীভাবে শুনানি হবে। তখন রিটকারী আইনজীবী কামরুল ইসলাম উত্তরে বলেন, তাকে কোনো ঠিকানায় পাওয়া যায়নি। এর বিরোধিতা করেন বিএনপি সমর্থক আইনজীবীরা।

এর পরিপ্রেক্ষিতে, গত ১০ আগস্ট তারেক রহমানের লন্ডনের ঠিকানা সংশোধন করে নতুন আবেদন করতে বলেন হাইকোর্ট। সে অনুযায়ী রবিবার তারেক রহমানের লন্ডনের সংশোধিত ঠিকানা সম্বলিত নতুন আবেদন দায়ের করার পর, হাইকোর্ট উপরোক্ত আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে আইনের দৃষ্টিতে পলাতক তারেক রহমানের বক্তব্য প্রচার ও প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী নাসরিন সিদ্দিকা রিট করেন। এই রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ২০১৫ সালের ৭ জানুয়ারি তৎকালীন বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেন।

আদেশে, আইনের দৃষ্টিতে পলাতক থাকায় তারেক রহমানের কোনো বক্তব্য কিংবা বিবৃতি গণমাধ্যমে প্রচার ও প্রকাশ নিষিদ্ধ করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে তারেক রহমানের বিদেশে অবস্থানের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানাতে পররাষ্ট্রসচিবকে নির্দেশ দেয়া হয়। তারেক রহমানের পাসপোর্টের মেয়াদ বিষয়ে পুলিশের মহাপরিদর্শককে (আইজিপি) একটি প্রতিবেদন দিতেও নির্দেশ দেন আদালত।

একই সঙ্গে তার বক্তব্য প্রকাশ ও প্রচার বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়। এরপর দীর্ঘদিনেও রুলের শুনানি হয়নি। সম্প্রতি এক সমাবেশে তারেক রহমানের বক্তব্য প্রচার করে বিএনপি। এরপর, তার বক্তব্য প্রচারে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে রুল শুনানির আবেদন করেন রিটকারী আইনজীবী নাসরিন সিদ্দিকা।

XS
SM
MD
LG