অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক বৈচিত্র্যের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার প্রস্তুতি নিতে হবে: আবদৌলায়ে সেক


ঢাকার গুলশানে, মেট্রোপলিটন চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, ঢাকা (এমসিসিআই) আয়োজিত মধ্যাহ্নভোজে বক্তব্য রাখছেন বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ ও ভুটানের কান্ট্রি ডিরেক্টর আবদৌলায়ে সেক। ২৮ আগস্ট, ২০২৩।
ঢাকার গুলশানে, মেট্রোপলিটন চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, ঢাকা (এমসিসিআই) আয়োজিত মধ্যাহ্নভোজে বক্তব্য রাখছেন বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ ও ভুটানের কান্ট্রি ডিরেক্টর আবদৌলায়ে সেক। ২৮ আগস্ট, ২০২৩।

স্বাধীনতার পর থেকে বাংলাদেশের অগ্রগতির প্রশংসা করলেন বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ ও ভুটানের কান্ট্রি ডিরেক্টর আবদৌলায়ে সেক। তিনি বলেন, “বাংলাদেশকে এখন অর্থনৈতিক বৈচিত্র্য সংশ্লিষ্ট চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার প্রস্তুতি নিতে হবে।” সোমবার (২৮ আগস্ট) রাজধানী ঢাকার গুলশানে, মেট্রোপলিটন চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, ঢাকা (এমসিসিআই) আয়োজিত মধ্যাহ্নভোজে এ কথা বলেন বিশ্বব্যাংক-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর।

আবদৌলায়ে সেক বলেন, “অদূর ভবিষ্যতে এলডিসিতে উন্নীত হওয়ার জন্য, বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক বৈচিত্র্য সংশ্লিষ্ট চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার প্রস্তুতি নিতে হবে।” তিনি বলেন “সর্বশেষ ভূ-রাজনৈতিক বিবেচনা এবং জলবায়ু পরিবর্তনের মধ্যে, বার্ষিক ২০ লাখ চাকরিপ্রার্থীর জন্য অভিযোজন প্রয়োজন।”

তিনি আরো বলেন, “অন্যান্য প্রতিযোগী রপ্তানিকারক দেশগুলোর তুলনায়, জিডিপির শতাংশ হিসাবে বাংলাদেশের রপ্তানি ছিলো খুবই কম। এ পরিস্থিতির সঙ্গে সমন্বয় করার জন্য, বহুপক্ষীয় সংস্থাগুলোর সঙ্গে সরকারি এবং বেসরকারি খাতগুলোর ক্রমাগত সংলাপের প্রয়োজন হবে।”

এমসিসিআই সভাপতি মো. সাইফুল ইসলাম, বাংলাদেশে ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নয়নে বিশ্বব্যাংকের অবদানের প্রশংসা করেন। তিনি ব্যবসায়িক জলবায়ু সূচক এবং জলবায়ু পরিবর্তনের উন্নয়নের ক্ষেত্রে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে সহযোগিতার সুযোগ অন্বেষণ করার আশা প্রকাশ করেন।

XS
SM
MD
LG