অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রী আরও আলোচনার প্রতিশ্রুতি দিয়ে চীন সফর সম্পন্ন করেছেন


সাংহাই পার্টির সেক্রেটারি চেন জিনিং চীনের সাংহাইতে একটি বৈঠকের আগে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রী জিনা রাইমন্ডোর সাথে করমর্দন করার সময়। ৩০ আগস্ট, ২০২৩।
সাংহাই পার্টির সেক্রেটারি চেন জিনিং চীনের সাংহাইতে একটি বৈঠকের আগে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রী জিনা রাইমন্ডোর সাথে করমর্দন করার সময়। ৩০ আগস্ট, ২০২৩।

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রী জিনা রাইমন্ডো বিশ্বের দুটি বৃহত্তম অর্থনীতির মধ্যে বাণিজ্যিক ও বাণিজ্য সম্পর্ক স্থিতিশীল করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসনের সর্বসাম্প্রতিক পদক্ষেপের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার চীনের চার দিনের সফর সম্পন্ন করেছেন।

বুধবার এক প্রকাশ্য মন্তব্যে রাইমন্ডো বলেন, তিনি চীনের কর্মক্ররতাদের সাথে নিয়মিত এবং সরাসরি আলোচনার বিষয়ে আশাবাদী, তবে তিনি “খুব স্পষ্ট দৃষ্টিসম্পন্ন” এবং তিনি আশা করেন না যে, বেইজিং-এর সাথে প্রতিটি সমস্যার “রাতারাতি” সমাধান হয়ে যাবে।

রাইমন্ডো বলেন, উভয় পক্ষ বাণিজ্য বিষয়ক গোপনীয়তা রক্ষার পাশাপাশি রপ্তানি নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কে তথ্য ভাগ করে নেয়ার বিষয়ে বিরোধ সংক্রান্ত কথা বলার জন্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের সাথে বৈঠক করার পরিকল্পনা করেছে।

যদিও যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যকার বার্ষিক বাণিজ্যের আর্থিক পরিমাণ ৭০ কোটি ডলারের বেশি, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে উত্তেজনা বৃদ্ধি পাওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের সংস্থাগুলোর চীনে কাজ করা আরও চ্যালেঞ্জিং হয়ে উঠেছে।

যদিও রাইমন্ডো রপ্তানি নিয়ন্ত্রণ প্রয়োগের ওপর একটি তথ্য বিনিময় এবং বাণিজ্যিক ইস্যুতে নতুন একটি ওয়ার্কিং গ্রুপ চালু করতে সম্মত হয়েছেন, কংগ্রেসের সমালোচকরা বেইজিং-এর সাথে গঠনমূলকভাবে কাজ করার জন্য ওয়াশিংটনের ক্ষমতা সম্পর্কে সন্দিহান।

মে মাসে সিআইএ ডিরেক্টর বিল বার্নস এবং জুন মাসে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনসহ যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাম্প্রতিক সফরের পাশাপাশি জুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রের রাজস্ব মন্ত্রী জ্যানেট ইয়েলেন এবং জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত জন কেরির পৃথক সফরের পর রাইমন্ডো চীন সফর করেন।

XS
SM
MD
LG