অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের সমৃদ্ধির জন্য সহযোগিতা অপরিহার্য: শাহরিয়ার আলম


বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম
বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম বলেছেন, “বাংলাদেশ বিশ্বাস করে যে ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে সহযোগিতা ও সমন্বয় অভিন্ন সমৃদ্ধির জন্য অপরিহার্য।” শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) বিআইআইএসএস মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ‘বাংলাদেশের ইন্দো-প্যাসিফিক আউটলুক: অপর্চুনিটিস অ্যান্ড ওয়ে ফরওয়ার্ড’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সেমিনারে এ কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

শাহরিয়ার আলম বলেন, “আমাদের ইন্দো-প্যাসিফিক আউটলুক হলো বিশ্বকে জানানোর একটি প্রচেষ্টা; আর, তা হলো, এই অঞ্চলটির অভিন্ন সমৃদ্ধির জন্য নয়, কেবল যারা এখানে বাস করে শুধু তাদের জন্যও নয়, বরং পুরো বিশ্বের জন্য আমাদের ইন্দো-প্যাসিফিক আউটলুক।”

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ এবং বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন ফর রিজিওনাল স্টাডিজ এই সেমিনারের আয়োজন করে।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, “বঙ্গোপসাগরের একটি উপকূলীয় দেশ হিসেবে, ইন্দো-প্যাসিফিক প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সেই অনুভবের আলোকে বাংলাদেশ তার পররাষ্ট্র নীতি মেনে চলে; আর তা হলো- সকলের প্রতি বন্ধুত্ব, কারো প্রতি বিদ্বেষ নয়।”

শাহরিয়ার আলম বলেন, “একটি মুক্ত, উন্মুক্ত, শান্তিপূর্ণ, নিরাপদ এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক ইন্দো-প্যাসিফিক; এই অঞ্চল এবং তার বাইরে; শান্তি, নিরাপত্তা, স্থিতিশীলতা এবং প্রবৃদ্ধির জন্য অপরিহার্য। এ কারণে, আমাদের ইন্দো-প্যাসিফিক দৃষ্টিভঙ্গি নিরাপত্তা-কেন্দ্রিক নয়, বরং আমরা এই অঞ্চলের অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের দিকে মনোনিবেশ করি।”

XS
SM
MD
LG