অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে এলপিজির দাম বাড়লো কেজিতে ১২ টাকা; রবিবার থেকেই কার্যকর


খুচরা ক্রেতাদের এখন ১২ কেজি এলপিজি সিলিন্ডার আগের ১ হাজার ১৪০ টাকার পরিবর্তে, ভ্যাটসহ ১ হাজার ২৮৫ টাকায় কিনতে হবে। অর্থাৎ, ১২ কেজি এলপিজি সিলিন্ডারের জন্য গ্রাহকদের অতিরিক্ত ১৪৪ টাকা খরচ করতে হবে।
খুচরা ক্রেতাদের এখন ১২ কেজি এলপিজি সিলিন্ডার আগের ১ হাজার ১৪০ টাকার পরিবর্তে, ভ্যাটসহ ১ হাজার ২৮৫ টাকায় কিনতে হবে। অর্থাৎ, ১২ কেজি এলপিজি সিলিন্ডারের জন্য গ্রাহকদের অতিরিক্ত ১৪৪ টাকা খরচ করতে হবে।

বাংলাদেশে তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাসের (এলপিজি) দাম প্রতি কেজিতে ১২ টাকা বাড়ানো হয়েছে। আগস্ট মাসে প্রতি কেজি এলপিজির দাম ছিল ৯৪ টাকা ৯৬ পয়সা। এখন এই দাম হয়েছে ১০৭ টাকা ০১ পয়সা।রবিবার (৩ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) নতুন দাম ঘোষণা করেছে। রবিবার সন্ধ্যা থেকেই নতুন দাম কার্যকর হয়েছে।

খুচরা ক্রেতাদের এখন ১২ কেজি এলপিজি সিলিন্ডার আগের ১ হাজার ১৪০ টাকার পরিবর্তে, ভ্যাটসহ ১ হাজার ২৮৫ টাকায় কিনতে হবে। অর্থাৎ, ১২ কেজি এলপিজি সিলিন্ডারের জন্য গ্রাহকদের অতিরিক্ত ১৪৪ টাকা খরচ করতে হবে। আগস্ট মাসে ১২ কেজি এলপিজি গ্যাসের দাম বেড়ানো হয়েছিলো ১৪১ টাকা।

বিইআরসি চেয়ারম্যান মো. নুরুল আমিন বিইআরসি কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, “সাড়ে ৫ কেজি থেকে ৪৫ কেজি পর্যন্ত অন্যান্য আকারের এলপিজি সিলিন্ডারের দাম একই হারে বাড়বে। রবিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে নতুন দাম কার্যকর হবে।”

বিইআরসি সিদ্ধান্ত অনুসারে, অটো গ্যাস (মোটর গাড়ির জন্য ব্যবহৃত এলপিজি) এর দামও প্রতি লিটারে ৫২ টাকা ১৭ পয়সা থেকে বেড়ে ৫৮ টাকা ৮৭ পয়সা (ভ্যাট সহ) হয়েছে। অর্থাৎ, প্রতি লিটারে ৬ টাকা ৭ পয়সা বেড়েছে।

তবে, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন এলপি গ্যাস কোম্পানির বাজারজাত করা এলপিজির দাম একই থাকবে; কারণ এটি স্থানীয়ভাবে ৫ শতাংশের কম বাজার শেয়ার নিয়ে উৎপাদিত হয়। বিইআরসি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সৌদি সিপির (চুক্তি মূল্য) দাম বৃদ্ধির কারণে স্থানীয় বাজারে এলপিজির দাম বাড়ানো হয়েছে।

বাংলাদেশের এলপিজি অপারেটররা সাধারণত সৌদি সিপি-এর ভিত্তিতে মধ্যপ্রাচ্যের বাজার থেকে পণ্য আমদানি করে। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি-তে স্থানীয় বাজারে এলপিজির সর্বোচ্চ দাম ছিলো ১ হাজার ৪৯৮ টাকা (প্রতি ১২ কেজি সিলিন্ডার)।

XS
SM
MD
LG