অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সব দেশের কিছু অধিকার আছে, তারা আমাদের উন্নয়ন সহযোগী: যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান সম্পর্কে মাসুদ বিন মোমেন


বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন
বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন

বাংলাদেশের অভ্যান্তরীণ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থানের বিষয়ে ভারতের গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন দেশটির পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি ডব্লিউআইওএন’র কূটনৈতিক প্রতিবেদক সিধান্ত সিবালকে বলেন, “আপনারা জানেন, প্রতিটি দেশের কিছু অধিকার বা এখতিয়ার রয়েছে। আর, তারা সবাই আমাদের উন্নয়ন সহযোগী।”

মাসুদ বিন মোমেন বলেন, “কোনো দেশ যদি বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে, তাহলে অবশ্যই বাংলাদেশ তাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার চেষ্টা করবে। আর, তাদের বোঝানোর চেষ্টা করবে যে, বাংলাদেশের উদ্দেশ্য নিয়ে তাদের সন্দেহ করার কোনো কারণ নেই।”

পররাষ্ট্র সচিব মোমেন বলেন, “ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিনয় মোহন কোয়াত্রা টু প্লাস টু ভারত-যুক্তরাষ্ট্র বৈঠকের পর ভারতের অবস্থান কী তা আগেই বলেছেন। তিনি আমার কাছে আগের কথার পুনরাবৃত্তি করেছেন এবং এই অবস্থানের প্রশংসা করেছেন যে নির্বাচন আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয় এবং আমাদের প্রতিষ্ঠান ও জনগণের ইচ্ছা অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।”

তিনি বলেন, “নির্বাচন কমিশন স্বাধীনভাবে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে এবং সরকার অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বর্তমানে কয়েকটি রাজনৈতিক দল ছাড়া সব রাজনৈতিক দল প্রার্থী মনোনয়ন ও বাছাইয়ের বিভিন্ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করছে।”

মাসুদ বিন মোমেন আশা প্রকাশ করেন, “জনগণের অংশগ্রহণে নির্বাচন কমিশন অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন করবে এবং বিদেশি পর্যবেক্ষকদের স্বাগত জানানোর জন্য উন্মুক্ত থাকবে; যাতে তারা এসে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করতে পারে এবং দেখতে পারে যে তারা কতটা অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন করেছে।”

এদিকে, শনিবার (২৫ নভেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের এক মুখপাত্র বলেছেন, “বাংলাদেশের বিশেষ কোনো রাজনৈতিক দলকে পছন্দ করে না যুক্তরাষ্ট্র।” পররাষ্ট্র দপ্তর পুনর্ব্যক্ত করেছে, “বাংলাদেশের জনগণ যা চায়, যুক্তরাষ্ট্র তাই চায়। আর তা হলো; শান্তিপূর্ণভাবে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্পন্ন হোক।”

পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র বলেন, “শান্তিপূর্ণভাবে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের অভিন্ন লক্ষ্যকে সমর্থন করতে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের কর্মকর্তারা সরকার, বিরোধী দল, সুশীল সমাজ ও অন্য অংশীজনদের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে। পাশাপাশি বাংলাদেশের জনগণের সুবিধার্থে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানায় যুক্তরাষ্ট্র।”

XS
SM
MD
LG