অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

শেখ হাসিনা: ‘বিএনপি অগ্নিসংযোগ করে মানুষের মন জয় করতে পারবে না'


বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা। ১৭ ডিসেম্বর, ২০২৩।
বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা। ১৭ ডিসেম্বর, ২০২৩।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সন্ত্রাস ও মানুষ হত্যা করে বিএনপি ও তার সহযোগীরা জনগণের মন জয় করতে পারবে না।

রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে, আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিজয় দিবসের আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, “আগুন সন্ত্রাস ও হত্যার মাধ্যমে মানুষের মন জয় করা সম্ভব নয়। তাদের এটি জানা উচিত এবং তাদের সেই অনুযায়ী কাজ করা উচিত।”

“বিএনপি জনগণের কল্যাণ চায় না। তারা বরং লুটপাট, অর্থপাচার ও জনসাধারণের টাকা লুটপাটের শাসন চায়;” যোগ করেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী।

শেখ হাসিনা আরো বলেন যে বিএনপি ভোটে আসতে চায় না কারণ তারা ভালো করেই জানে, দেশের মানুষ তাদের ভোট দেবে না।

তিনি বলেন, “বিএনপি ও এর সহযোগীরা এই তিক্ত সত্য সম্পর্কে খুব ভালোভাবে জানে, তাই তারা আগামী ৭ জানুয়ারির নির্বাচন বানচাল করতে এবং সরকারকে উৎখাত করতে চায়।”

আওয়ামী লীগ অবৈধ ক্ষমতা দখলকারীর পকেটে জন্মায়নি বলে উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা। বলেন, “এই দল এদেশের মাটি ও মানুষের সংগঠন।”

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, সব প্রতিকূলতা ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে এই দল বিস্তৃতি লাভ করেছে। এই দলের শিকড় অনেক গভীরে প্রোথিত।

শেখ হাসিনা বলেন, "তারা (বিএনপি) এভাবে আওয়ামী লীগকে উৎখাত বা দমন করতে পারবে না।"

অগ্নিসংযোগকারী, খুনি ও রেললাইনে নাশকতাকারীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য বাংলাদেশের জনগণের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

শেখ হাসিনা আরো বলেন, “এই ধরনের ধ্বংসাত্মক কার্যক্রম এদেশে চলতে দেয়া উচিত নয়।”

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ যখন কোভিড-১৯ মহামারী এবং ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের কারণে সৃষ্ট সমস্যা কাটিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে, তখন বিএনপি ও তার মিত্ররা জনগণের ভাগ্য নিয়ে খেলতে অগ্নিসংযোগ, হরতাল ও অবরোধ কর্মসূচিতে লিপ্ত রয়েছে।

আওয়ামী লীগ দেশে নির্বাচনী সংস্কৃতি এনেছে এবং জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিয়েছে বলে উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা। বলেন, “জনগণ তাদের সিদ্ধান্ত নেবে, তারা কাকে নির্বাচিত করবে এবং কে সরকার গঠন করবে।"

XS
SM
MD
LG