অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশ নির্বাচন: রাজশাহী-৪ আসনে নৌকার সমর্থকদের বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থীর ৩ কর্মীকে মারধরের অভিযোগ


আহতদের হাসপাতালে দেখতে যান স্বতন্ত্র কাঁচি মার্কার প্রার্থী এনামুল হক। ২৬ ডিসেম্বর, ২০২৩।
আহতদের হাসপাতালে দেখতে যান স্বতন্ত্র কাঁচি মার্কার প্রার্থী এনামুল হক। ২৬ ডিসেম্বর, ২০২৩।

রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য (এমপি) ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর ‘কাঁচি’ প্রতীকের পক্ষে প্রচারণা চালানোর সময় ৩ জনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে নৌকার সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

আহতদের উদ্ধার করে বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

নৌকা মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ ও স্বতন্ত্র কাঁচি মার্কার প্রার্থী এনামুল হক বাগমারায় সহিংসতা বন্ধের অঙ্গীকারের এক দিন পরেই এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে এলাকায় আবারও উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে।

এদিকে, খবর পেয়ে রাতে আহতদের হাসপাতালে দেখতে যান এনামুল হক। এ সময় তিনি আহতদের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন।

আহতের মধ্যে পাহাড়পুর গ্রামের রজনী ও অজিত কুমারসহ কাঁচি প্রতীকের পোস্টার লাগানোর কারণে পিটিয়ে জখম করেছে নৌকা প্রার্থীর সমর্থকেরা।

এছাড়াও রবিবার সকাল ১০টার দিকে বালানগর গ্রামের লুৎফর রহমানের ওপর হামলা চালিয়ে আহত অবস্থায় ফেলে রেখে যায় নৌকার সমর্থকেরা।

পিটিয়ে আহতের পৃথক ঘটনায় রাতেই মামলার প্রস্তুতি চলছিল বলে জানা গেছে।

আহতরা জানান, ভবানীগঞ্জ পৌরসভার পাহাড়পুর ঋষিপাড়া মহল্লায় কাঁচি প্রতীকের প্রচারণা শেষে পৌর মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডলকে বিদায় দিয়ে পাহাড়পুর মোড়ে চায়ের দোকানে অবস্থান করছিলেন। এ সময় নৌকার সমর্থক কয়েকজন দোকানে ঢুকে অজিত কুমার ও রজনীকে মারধর করতে থাকে। আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন।

এ ব্যাপারে বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার বলেন, এ ঘটনা তিনি শুনেছেন, তবে আহতদের পক্ষ থেকে এখনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অপরাধী যেই হোক না কেন, ছাড় দেওয়া হবে না বলে জানান তিনি।

XS
SM
MD
LG