অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জাতির জনক, স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় স্মরণ করলো বাংলাদেশ। ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট কতিপয় বিপথগামী সেনা সদস্যের হাতে সপরিবারে নিহত হন বঙ্গবন্ধু। ভোর থেকেই রাজধানীর সব পথ গিয়ে মেশে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় সর্বস্তরের লাখো মানুষ। সকালে এক সঙ্গে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফুল দিয়ে সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন তারা। তিন বাহিনীর একটি চৌকস দল বঙ্গবন্ধুর প্রতি সশস্ত্র সালাম জানায় এ সময়। বিউগলে বেজে ওঠে করুণ সুর।
১৫ই আগস্টের শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করে অনুষ্ঠিত হয় বিশেষ মোনাজাত। পরে প্রতিকৃতিতে ফুল দেন স্পিকার শিরীন শারমীন চৌধুরী ও প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা, মন্ত্রীবর্গ, আওয়ামী লীগ ও মহাজোটের শরিক দলের নেতাকর্মীরা। ফুল দেয়ার পর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে স্মৃতিবিজড়িত বাড়িটিতে কিছুক্ষণ সময় কাটান প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। পরে ছোট বোন শেখ রেহানাকে নিয়ে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বনানী কবরস্থানে যান তিনি। সেখানে ১৫ই আগস্ট নিহত তার পরিবারের সদস্য ও স্বজনদের কবরে গোলাপের পাঁপড়ি ছিটিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তার ছোট বোন শেখ রেহানা ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। পরে জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচিতে অংশ নিতে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী টুঙ্গিপাড়া যান।

ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী।

XS
SM
MD
LG