অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

করোনা বিষয়ক ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বের হওয়ায় বাংলাদেশের স্বস্তি 


এলিজাবেথ টাওয়ার যার মধ্যে বিগ বেন নামে পরিচিত বিশ্ব বিখ্যাত ঘণ্টা রয়েছে লন্ডনের পার্লামেন্ট স্কয়ারের কাছে। ২ এপ্রিল, ২০২১।

প্রায় সাড়ে চার মাস পর ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বের হয়েছেবাংলাদেশ।আগামী ২২শে সেপ্টেম্বর লন্ডনের স্থানীয় সময় ভোর চারটা থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। শুক্রবার যুক্তরাজ্য সরকারের তরফে এ সংক্রান্ত ঘোষণা আসায় স্বস্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ।করোনা ভাইরাসের উচ্চ ঝুঁকির দেশগুলোর তালিকায় রাখায় বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাজ্য ভ্রমণে যে জটিলতা তৈরি হয়েছিল ব্রিটিশ সরকারের নতুন ঘোষণায় তা কেটে যাবে।

শুক্রবার যুক্তরাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী গ্রান্ট শ্যাপস রেড লিস্ট সংক্রান্ত তালিকা হালনাগাদের তথ্য প্রকাশ করেন। বাংলাদেশের সঙ্গে তুরস্ক,পাকিস্তান, মালদ্বীপ, মিশর, শ্রীলঙ্কা, ওমানও কেনিয়াকেও এই লাল তালিকা থেকে বাদ দিয়েছে যুক্তরাজ্য। নতুন ঘোষণা অনুযায়ি ২২শে সেপ্টেম্বর থেকে যুক্তরাজ্য ভ্রমণের ক্ষেত্রে ১০ দিনের বাধ্যতামূলক হোটেল কোয়ারেন্টিনের শর্ত থাকবে না।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের উচ্চ হারবিবেচনায় নিয়ে গত ৯ই এপ্রিল বাংলাদেশকে রেড লিস্টে অন্তর্ভুক্ত করে যুক্তরাজ্য।রেড লিস্ট থেকে বাদ দেয়ায় ব্রিটিশ সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। এক ভিডিও বার্তায় তিনি এক প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করে বলেন, এটা বাংলাদেশের জন্য ভালো সংবাদ।নিজ দেশের এমন সিদ্ধান্তে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটার্টনডিকসন।নিজের অফিসিয়াল টুইটার একাউন্ট থেকে করা এক পোস্টে তিনি লেখেন, আগামী সপ্তাহে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে সরিয়ে নিতে যাওয়া ৮ টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশও রয়েছে এটা জানতে পেরে ভালো লাগছে।ব্যবসা এবং ভ্রমণকারীদের জন্য এটি বড় সুসংবাদ।

উল্লেখ করা যায় যে, গত ৬ই সেপ্টেম্বর দ্বিপাক্ষিক ভার্চুয়াল বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ব্রিটেনের রেড লিস্ট থেকে বাংলাদেশের নাম সরিয়ে নিতে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাবকে অনুরোধ জানিয়েছিলেন। এর দু’দিনের মাথায় অনুষ্ঠিত স্ট্র্যাটেজিক ডায়ালগেও এ নিয়ে আলোচনা হয় এবং লাল তালিকা থেকে নাম সরিয়ে নেয়ার অনুরোধ পুনর্ব্যক্ত করে বাংলাদেশ।

XS
SM
MD
LG