অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নারায়ণগঞ্জে চলন্ত বাসে তরুণী ধর্ষণের অভিযোগ, চালক-হেলপারসহ গ্রেফতার তিনজন


নারায়ণগঞ্জের বন্দরে চলন্ত বাসে তরুণীকে দল বেঁধে ধর্ষণের অভিযোগে তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। (ফটো- বাংলাদেশ প্রতিদিন)

বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জের বন্দরে চলন্ত বাসে তরুণীকে (২১) দল বেঁধে ধর্ষণের অভিযোগে তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হচ্ছেন বাসটির চালক, হেলপার ও কন্ডাকটর। পুলিশ জানায় রবিবার রাতে বন্দর থানার মদনপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা জানান, রবিবার রাত ১০টার দিকে যাত্রাবাড়ী থেকে বাসে এক তরুণী রূপগঞ্জের গাউছিয়ার উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। বাসটি চিটাগাং রোডে আসতেই সব যাত্রী নেমে যায়। এ সুযোগে চলন্ত বাসের মধ্যে ওই তরুণীকে চালক, হেলপার ও কন্ডাকটর মিলে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। চিটাগং রোডের পর থেকে ঘটনা ঘটলেও বন্দরের মদনপুরে এসে ওই তরুণীকে বাস থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়।

পরে ৯৯৯-এ ভুক্তভোগী নারী ফোন করে ঘটনাটি জানায়। পুলিশ রাতেই গাড়ি মেরামতের দোকান থেকে অভিযুক্ত বাসটির চালক, হেলপার ও কন্ডাকটরকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা হচ্ছেন, কিশোরগঞ্জের মিঠামাইনের নূরুল হক। অন্য দুইজন রূপগঞ্জের চনপাড়ার বুলেট ও বরগুনার শান্ত মিয়া। তদের মধ্যে নূরুল হক ছিলেন বাসটির চালক, বুলেট ছিলেন হেলপার ও কন্ডাকটর ছিলেন শান্ত। বাকী দুইজন নিজেদের অপ্রাপ্ত বয়স্ক বলে পুলিশের কাছে দাবি করেন।

পুলিশ জানায়, অভিযোগকারীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পরীক্ষার রিপোর্ট এলে ধর্ষণের বিষয়টি স্পষ্ট হবে। এ ব্যাপারে মামলা দায়ের হচ্ছে।

XS
SM
MD
LG