অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের পাচার বেড়ে গেছে


গত কয়েকমাস সময়কালে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের পাচার ও পাচার প্রচেষ্টা বেড়ে গেছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো খবর দিয়েছে। গত এক সপ্তাহের মধ্যেই বাংলাদেশের আইন-শৃংখলা রক্ষাবাহিনী সমুদ্র এবং আকাশ পথে প্রধানত মালয়েশিয়া পাচারের সময় কমপক্ষে দেড়শ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে। এদের মধ্যে নারীর সংখ্যা উল্লেখযোগ্য সংখ্যক। আগে শুধুমাত্র সমুদ্র পথে পাচার হলেও এখন আকাশ পথকেও বেচে নিয়েছে পাচারকারীরা।

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর তথ্য মোতাবেক ১০ মে বিমানে করে মালয়েশিয়া পাচারের চেষ্টাকালে ঢাকার খিলক্ষেত থেকে ২৩ জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষকে আটক করা হয়। ১২ মে কক্সবাজারের মহেশখালী থেকে উদ্ধার করা হয় ১২ জন, ১৩ মে কক্সবাজারের টেকনাফ ও অন্য এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয় ২২ জন, ১৫ মে কক্সবাজার থেকে উদ্ধার করা হয় ৩৪ জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষকে। গেল মাত্র কয়েকদিনে পুলিশ কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকা থেকে পাচারের প্রচেষ্টাকালে ৬৯ জন রোহিঙ্গাকে আটক করে বলে ১৫ মে সংবাদ মাধ্যম খবর দিয়েছে। এছাড়াও এপ্রিল মাসে এ ধরনের বেশ কয়েকটি আটকের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। ২০১৫ সালে কমপক্ষে ২৫ হাজার রোহিঙ্গা আন্দামান সাগর পাড়ি দিয়ে মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও থাইল্যান্ড যাওয়ার চেষ্টাকালে এদের অনেকেই প্রাণ হারিয়েছেন। এরপর বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ কড়াকড়ি ব্যবস্থা আরোপের কারণে পরিস্থিতির যথেষ্ট উন্নতি ঘটেছিল।

এদিকে, মালয়শীয় সংবাদ মাধ্যম বলছে, গত কয়েক মাসে কয়েকশ রোহিঙ্গা সাগর পথে ঐ দেশটিতে প্রবেশের সময় দেশটির আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর হাতে আটক হয়েছেন। গত ৭ এপ্রিলই কমপক্ষে ২শ রোহিঙ্গা মালয়েশিয়ার সমুদ্র উপকূলে দেশটিতে প্রবেশের চেষ্টাকালে আটক হয়েছেন বলে দেশটির কর্তৃপক্ষ সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছে। কেন বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা পাচারের শিকার হচ্ছেন সে সম্পর্কে বিশ্লেষণ করেছেন অভিবাসন বিষয়ক বিশ্লেষক এবং অভিবাসন সংস্থা আইওএমএ’র প্রাক্তন কর্মকর্তা আসিফ মুনীর।

please wait

No media source currently available

0:00 0:06:22 0:00

XS
SM
MD
LG