অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে মিয়াম্মার থেকে রহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশ ইদানীং আরো বেড়েছে


বাংলাদেশে মিয়াম্মার থেকে রহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশ বেড়েছে ইদানিং- বাড়ছে আরো । ইতিমধ্যে মিয়াম্মারের রাষ্ট্রদূতকে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে পাঠিয়ে প্রতিবাদ পত্রও হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব। বিষয়টি নিয়ে ঢাকা থেকে রিপোর্ট পাঠিয়েছেন আমির খসরু।

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নতুন করে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ায় শুক্রবার রাত এবং শনিবার ভোরে, বিভিন্ন সূত্রের খবর অনুযায়ী, নতুন করে কমপক্ষে দেড় হাজার রোহিঙ্গা আশ্রয় প্রার্থী বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে। তবে স্থানীয়দের ভাষ্য মোতাবেক, এই সংখ্যা ৫ হাজারের কম হবে না। হা

জার হাজার মিয়ানমারের আশ্রয় প্রার্থী বাংলাদেশে প্রবেশের জন্য সীমান্তে জড়ো হয়েছেন। বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি’র কক্সবাজারের অধিনায়ক লে. কর্নেল মঞ্জুরুল হাসান অসংখ্য রোহিঙ্গা আশ্রয় গ্রহণের জন্য জড়ো হওয়ার কথা জানিয়ে- তাদের অবশ্য অনুপ্রবেশ করতে দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন।যারা পালিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পেরেছেন তারা জানান, তাদের উপরে নির্যাতনের নানান কাহিনী। মিয়ানমারের বাহিনী বাংলাদেশ সীমান্তে অবস্থানরত আশ্রয় প্রার্থীদের লক্ষ্য করে শনিবার গুলি ছুঁড়েছে। কর্মকর্তারা জানান, বান্দবনের নাইক্ষ্যংছড়িতে এই ঘটনা ঘটে।


এদিকে পালিয়ে আশাদের অনেকেই গুলির আঘাতে জখম বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। এদেরই একজন ২২ বছর বয়সী মোহাম্মদ মুসা। শনিবার বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থান মারা গেছেন।


ঢাকায় পররাষ্ট্র দফতরে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে সর্বসাম্প্রতিক ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশের প্রতিবাদপত্র হস্তান্তর করা হয়েছে।
সীমান্তে সতর্কতা জারি ও কড়াকড়ি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

পালিয়ে আসা হাজার হাজার মিয়ানমারের রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় লাভের আশায় সীমান্তে অপেক্ষমাণ রয়েছেন। তবে বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি অনুপ্রবেশ প্রতিহত করেছে বলে দাবি করেছে।


মাঝে মাঝেই এ ধরনের ঘটনা ঘটার কারণে বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণকারী রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে নতুন একটি কর্মকৌশলপত্র প্রস্তুত করেছে। কৌশলপত্র নির্ধারণের লক্ষ্যে গত বুধ এবং বৃহস্পতিবার কক্সবাজারে বৈদেশিক সংস্থা ও দেশের প্রতিনিধিদের সাথে বাংলাদেশ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এবারের কৌশলপত্রে প্রথমবারের মতো জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার কার্যক্রমকে আনুষ্ঠানিক অনুমতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এই কৌশলপত্র সম্পর্কে বিশ্লেষণ করেছেন আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আইওএম-এর সাবেক কর্মকর্তা এবং বর্তমানে অভিবাসন বিষয়ে বিশ্লেষক আসিফ মুনীর।...ঢাকা থেকে আমীর খসরু

XS
SM
MD
LG